বাইবেল কি?


প্রশ্ন: বাইবেল কি?

উত্তর:
“বাইবেল” শব্দটি ল্যাটিন এবং গ্রীক শব্দ থেকে এসেছে, যার অর্থ “বই”, একটি উপযুক্ত নাম, কারণ বাইবেল সমস্ত লোকেদের জন্য, সর্বকালের জন্য বই I এটি অন্য কোনো বইয়ের মতন নয়, নিজেই একটি শ্রেণী I

ছেষট্টিটি বিভিন্ন বই নিয়ে বাইবেল গঠিত হয়েছে I এর মধ্যে ব্যবস্থার বই, যেমন লেবীয় এবং দ্বিতীয় বিবরণ; ঐতিহাসিক বই, যেমন এস্রা এবং প্রেরিত; কবিতার বই, যেমন গীতসংহিতা এবং উপদেশক, ভাববানীর বই, যেমন যিশাইয় এবং প্রকাশিত বাক্য; জীবনী, যেমন মথি এবং যোহন; এবং চিঠিগুলি (আনুষ্ঠানিক চিঠিগুলি), যেমন তীত ও ইব্রীয় রয়েছে I

রচয়িতারা

প্রায় 40 জন বিভিন্ন মানব রচয়িতা বাইবেলে যোগদান করেছিলেন, যা প্রায় 1500 বছরের বেশি সময় ধরে লেখা হয়েছিল I রচয়িতারা হলেন রাজা, জেলে, যাজক, সরকারী আধিকারিক, কৃষক, মেষপালক, এবং ডাক্তার I এই সমস্ত থেকে একটি অবিশ্বাস্য ঐক্য আসে, যা সাধারণ থিমগুলি জুড়ে বোনা হয় I

বাইবেলের ঐক্য এই কারণে যে, শেষ পর্যন্ত, এর একজন রচয়িতা – স্বয়ং ঈশ্বর I বাইবেল “ঈশ্বর নি:শ্বসিত” (2 তীমথিয় 3:16) I মানব রচয়িতারা তাই লিখেছিলেন যা ঈশ্বর তাদেরকে দিয়ে লেখাতে চেয়েছিলেন, এবং ফলাফল ছিল নিখুঁত, এবং ঈশ্বরের পবিত্র বাক্য (গীতসংহিতা 12:6; 2 পিতর 1:21) I

বিভাজন

বাইবেল মূলত দুই ভাগে বিভক্ত: পুরনো নিয়ম এবং নতুন নিয়ম I সংক্ষেপে, পুরনো নিয়ম একটি জাতির ইতিহাস, এবং নতুন নিয়ম এক মানুষের কাহিনী I জাতিটি ছিল ঈশ্বরের উপায়ে মানুষকে – যীশু খ্রীষ্টকে - বিশ্বে আনার I

পুরনো নিয়ম ইস্রায়েলের জাতির স্থাপনা এবং সংরক্ষণকে বর্ননা করে I ঈশ্বর সমগ্র পৃথিবীকে আশীর্বাদ দিতে ইস্রায়েলকে ব্যবহার করতে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন (আদিপুস্তক 12:2-3) I একবার ইস্রায়েল এক জাতিতে প্রতিষ্ঠিত হয়ে গেলে, ঈশ্বর সেই জাতির মধ্যে এক পরিবারকে উত্থিত করলেন যার মাধ্যমে আশীর্বাদ আসবে: দায়ূদের পরিবার (গীতসংহিতা 89:3-4) I তারপরে, দায়ূদের পরিবারের পক্ষ থেকে এমন এক ব্যক্তির সম্বন্ধে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল যিনি প্রতিশ্রুত আশীর্বাদ নিয়ে আসবেন (যিশাইয় 11:1-10) I

নতুন নিয়মে সেই প্রতিশ্রুত ব্যক্তির আগমনের বিবরণ রয়েছে I তাঁর নাম ছিল যীশু, আর তিনি পুরনো নিয়মের ভবিষ্যদ্বাণীগুলি পূরণ করেছিলেন, কারণ তিনি নিখুঁত জীবন যাপন করেছিলেন, উদ্ধারকর্তা হতে মারা গিয়েছিলেন, এবং মৃতদের মধ্য থেকে জীবিত হয়েছিলেন I

কেন্দ্রীয় চরিত্র

বাইবেলের মধ্যে যীশু হ’ল কেন্দ্রীয় চরিত্র – সমগ্র বইটি প্রকৃতপক্ষে তাঁর সম্বন্ধে I পুরনো নিয়ম তাঁর আগমন সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করে এবং এই জগতে তাঁর প্রবেশের জন্য মঞ্চ স্থাপন করে I নতুন নিয়ম তাঁর আগমন এবং আমাদের পাপী জগতে তাঁর পরিত্রাণ নিয়ে আসার কাজকে বর্ণনা করে I

যীশু ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্বের থেকে বেশি; আসলে তিনি একজন মানুষের থেকে বেশি I তিনি মাংসের মধ্যে এক ঈশ্বর, এবং তাঁর আগমন জগতের ইতিহাসের মধ্যে সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা ছিল I তিনি কে তার সম্বন্ধে একটি স্পষ্ট, বোধগম্য চিত্র আমাদের দিতে ঈশ্বর স্বয়ং একজন মানুষ হলেন I ঈশ্বর কিরকম? তিনি যীশুর মতন; যীশু মানবীয় রূপে ঈশ্বর (যোহন 1:14, 14:9) I

একটি সংক্ষিপ্ত সারাংশ

ঈশ্বর মানুষ সৃষ্টি করলেন এবং তাকে এক নিখুঁত পরিবেশে রাখলেন; মানুষ ঈশ্বরের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করল এবং তাকে ঈশ্বর যা হতে ইচ্ছা করেছিলেন তার থেকে পতন হ’ল I ঈশ্বর জগতকে পাপের কারণে এক অভিশাপের অধীনে স্থাপন করলেন তবে মানবতা এবং সমস্ত সৃষ্টিকে তার মূল গৌরবে পুনস্থাপন করতে তৎক্ষনাৎ এক পরিকল্পনা তৈরী করলেন I

মুক্তির সম্বন্ধে তাঁর পরিকল্পনার অংশ হিসাবে, ঈশ্বর আব্রাহামকে বাবিল থেকে কাননে ডাকলেন (প্রায় 2000 খ্রীষ্টপূর্বাব্দ) I ঈশ্বর আব্রাহাম, তাঁর পুত্র ইসহাক, এবং তার নাতি যাকোবকে প্রতিশ্রুতি দিলেন (ইস্রায়েল বলেও ডাকা হয়) যে তাদের এক বংশধরের মাধ্যমে তিনি জগতকে আশির্বাদিত করবেন I ইস্রায়েলের পরিবার কানন থেকে মিশরে চলে এসেছিল যেখানে তারা এক জাতি রূপে গড়ে উঠেছিল I

প্রায় 1400 খ্রীষ্টপূর্বাব্দ, ঈশ্বর ইস্রায়েলের বংশধরদের মশির নির্দেশের অধীনে মিশর থেকে বার হয়ে আসতে চালিত করলেন এবং তাদের প্রতিশ্রুত দেশ কাননকে তাদের নিজস্ব হিসাবে দিলেন I মশির মাধ্যমে ঈশ্বর ইস্রায়েলের লোকেদের ব্যবস্থা দিলেন এবং তাদের সাথে এক নিয়ম (টেস্টামেন্ট) তৈরী করলেন I তারা যদি ঈশ্বরের কাছে বিশ্বস্ত থাকে এবং চারিপাশের জাতিগণের মূর্তিপূজাকে অনুসরণ না করে তবে তারা সমৃদ্ধ হবে I যদি তারা ঈশ্বরকে পরিত্যাগ করে এবং মূর্তিপূজা অনুসরণ করে, তাহলে ঈশ্বর তাদেরকে ধ্বংস করবেন I

প্রায় 400 বছর পরে, দায়ূদ এবং তার পুত্র শলোমনের রাজত্বকালে, ইস্রায়েল এক দুর্দান্ত শক্তিশালী রাজ্যে ঘনীভূত হয়েছিল I ঈশ্বর দায়ূদ এবং শলোমনকে প্রতিশ্রুতি দিলেন যে তাদের এক বংশধর এক অনন্তকালীন রাজা হিসাবে শাসন করবেন I

শলোমনের রাজত্বের পরে, ইস্রায়েল জাতি বিভক্ত হয়ে গেল I উত্তর দিকের দশ গোত্রদের “ইস্রায়েল” বলে ডাকা হত, এবং তারা তাদের মূর্তিপূজার জন্য ঈশ্বরের দ্বারা বিচারিত হওয়ার পূর্বে 200 বছর স্থায়ী হ’ল I অশুরিয়া প্রায় 721 খ্রীষ্টপূর্বাব্দে ইস্রায়েলকে বন্দী বানাল I দক্ষিণের দুটি গোত্রকে “যিহূদিয়া” বলা হত এবং তারা ইস্রায়েলের চেয়ে একটু বেশি স্থায়ী হ’ল, তবে পরিশেষে, তারাও, ঈশ্বের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিল I প্রায় 600 খ্রীষ্টপূর্বাব্দে বাবিল তাদেরকে বন্দী করে নিল I

প্রায় 70 বছর পরে, ঈশ্বর অনুগ্রহের সাথে, বন্দীদশার এক অবশিষ্টাংশকে তাদের নিজেদের দেশে ফিরিয়ে আনলেন I রাজধানী যিরূশালেম, 444 খ্রীষ্টপূর্বাব্দে পুনর্নিমিত হ’ল, এবং আবার একবার এক জাতীয় পরিচিতি প্রতিষ্ঠিত করল I এইরূপে পুরনো নিয়ম শেষ হয় I

নতুন নিয়ম প্রায় 400 বছর পরে বেৎলেহেমে যীশু খ্রীষ্টের জন্মের সাথে শুরু হয় I যীশু আব্রাহাম এবং দায়ূদের কাছে প্রতিশ্রুত বংশধর, এমন একজন ব্যক্তি যিনি মানব জাতির মুক্তির ঈশ্বরের পরিকল্পনা পূরণ এবং সৃষ্টির পুনস্থাপন করার জন্য ছিলেন I যীশু বিশ্বস্রভাবে তাঁর কাজ করেছিলেন – তিনি পাপের জন্য মারা গেলেন এবং মৃত্যু থেকে উঠলেন I খ্রীষ্টের মৃত্যু জগতের সাথে এক নতুন নিয়মের (টেস্টামেন্ট) জন্য ভিত্তি I যীশুতে যাদের বিশ্বাস আছে তারা সকলেই পাপের থেকে রক্ষা পাবে এবং অনন্তকাল বেঁচে থাকবে I

তাঁর পুনরুত্থানের পরে, যীশু তাঁর শিষ্যদের তাঁর জীবনের সমস্ত জায়গা এবং তাঁর রক্ষা করার শক্তির সংবাদ প্রচার করতে পাঠিয়েছিলেন I তারা এশিয়া মাইনর, গ্রীস, এবং রোমীয় সাম্রাজ্যের মধ্য দিয়ে ভ্রমণ করেছিলেন I নতুন নিয়ম যীশুর অবিশ্বাসী জগতের বিচারের জন্য প্রত্যাবর্তন এবং অভিশাপ থেকে মুক্ত হওয়া সৃষ্টির সাথে শেষ হয় I

English
বাংলা হোম পেজে ফিরে যান
বাইবেল কি?

কিভাবে খুঁজে ...

ঈশ্বর সঙ্গে অনন্তকাল কাটা



ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা লাভ করুন