ঈশ্বরকে কেউ কি কখনও দেখেছে?


প্রশ্ন: ঈশ্বরকে কেউ কি কখনও দেখেছে?

উত্তর:
বাইবেল আমাদের বলে যে, একমাত্র যীশু খ্রীষ্ট ছাড়া আর কেউ কখনও ঈশ্বরকে দেখেনি (যোহন ১:৮ পদ)। যাত্রাপুস্তক ৩৩:২০ পদে ঈশ্বর এই কথা ঘোষণা করেন যে, "তুমি আমার মুখ দেখিতে পাইবে না, কেননা মনুষ্য আমাকে দেখিলে বাঁচিতে পারে না।" এই শাস্ত্রাংশটি বাইবেলের অন্যান্য শাস্ত্রাংশের সাথে স্ববিরোধী যেখানে বলা হয়েছে যে, নানা সময়ে লোকেরা ঈশ্বরকে দেখেছে। যাত্রাপুস্তক ৩৩:১১ পদে বলা হয়েছে যে, লোকে যেমন বন্ধুর সাথে কথা বলে মোশিও ঠিক তেমনিভাবে ঈশ্বরের সাথে সম্মুখাসম্মুখি হয়ে কথা বললেন। ঈশ্বরকে দেখলে যদি বেঁচে থাকা সম্ভব না হয় তাহলে মোশি কিভাবে ঈশ্বরের সাথে সম্মুখাসম্মুখি হয়ে কথা বললেন? "সম্মুখাসম্মুখি" শব্দটি এখানে আলংকারিকভাবে ব্যবহৃত হয়েছে যা প্রকাশ করে যে, তারা খুবই ঘনিষ্ঠভাবে একে অপরের সাথে কথা বলেছিলেন; বিষয়টি এমন যেন দুই বন্ধু গভীর কথোপকথনে ব্যস্ত।

আদিপুস্তক ৩২:৩০ পদে লেখা আছে, যাকোব ঈশ্বরকে স্বর্গদূতের বেশে উপস্থিত হতে দেখেছিলেন; প্রকৃত সত্য হলো তিনি প্রত্যক্ষভাবে ঈশ্বরকে দেখেননি। শিমশোনের বাবা-মা যখন বুঝতে পারলেন যে, তারা ঈশ্বরকে দেখেছেন তখন তারা খুবই ভীত হয়ে পড়লেন; তারা সরাসরি ঈশ্বরকে নয়, কিন্তু স্বর্গদূতের বেশে ঈশ্বরকে দেখেছিলেন। প্রকৃতপক্ষে মানবরূপে যীশুই ঈশ্বর ছিলেন (যোহন ১:১ পদ)। তাই বলা যায় যে, লোকেরা যখন যীশুকে দেখেছিল তখন তারা ঈশ্বরকেই দেখেছিল। অতএব, বলা যায় যে, হ্যাঁ, ঈশ্বরকে "দেখতে" পাওয়া যেতে পারে এবং অনেক লোকই তাঁকে দেখেছে। সেই সঙ্গে এ কথাও ঠিক যে, কেউ কখনও ঈশ্বরকে তাঁর সমস্ত প্রতাপের সহিত দেখেনি। এরূপ অবস্থায় তাঁকে দেখলে আমরা অবশ্যই ক্ষয়প্রাপ্ত হব ও ধ্বংস বা শেষ হয়ে যাব। তাই উপসংহারে বলা যায় যে, ঈশ্বর আমাদের সম্মুখে তাঁর সমস্ত প্রতাপ আড়াল করে রাখেন এবং এমন অবয়বে বা আকারে আমাদের সামনে উপস্থিত হন যাতে আমরা তাঁকে প্রত্যক্ষ করতে পারি। যাহোক, ঈশ্বরকে তাঁর সমস্ত প্রতাপের সহিত দেখতে পাওয়ার চেয়ে এটি ভিন্ন একটি বিষয়। লোকেরা ঈশ্বরের কাছ থেকে দর্শন পেয়েছে, তাঁর প্রতিচ্ছবি বা প্রতিমূর্তি অবলোকন করেছে এবং তাঁর উপস্থিতিও টের পেয়েছে, কিন্তু কেউ-ই কখনও ঈশ্বরকে তাঁর সমস্ত প্রতাপ বা মহিমায় সহিত প্রত্যক্ষ করেনি (যাত্রাপুস্তক ৩৩:২০ পদ)।

English


বাংলা হোম পেজে ফিরে যান
ঈশ্বরকে কেউ কি কখনও দেখেছে?