সেনাবাহিনীতে (সামরিক বাহিনী) কোন খ্রীষ্টিয়ানের কাজ করা বা সেবা প্রদান করা সম্বন্ধে বাইবেল কী বলে?



প্রশ্ন: সেনাবাহিনীতে (সামরিক বাহিনী) কোন খ্রীষ্টিয়ানের কাজ করা বা সেবা প্রদান করা সম্বন্ধে বাইবেল কী বলে?

উত্তর:
সেনাবাহিনীতে কাজ করা বা সেবা প্রদান করা সম্বন্ধে বাইবেলে অসংখ্য তথ্য রয়েছে। এ বিষয়ে বাইবেলে উল্লেখিত সুপারিশগুলোর মধ্যে একটি সাদৃশ্যতা বিদ্যমান আছে, এর মধ্যকার কতিপয পদগুলো সরাসরি এই প্রশ্নের সাথে সম্পর্কিত। পবিত্র বাইবেল কখনই সুস্পষ্ট ও সুনির্দিষ্টভাবে এই বক্তব্য প্রদান করে না যে, সেনাবিাহিনীতে কারও কাজ করা উচিত, না কি উচিত নয়। সঙ্গে সঙ্গে খ্রীষ্টিয়ানরা পবিত্র শাস্ত্রের মধ্য দিয়ে আশ্বস্ত হতে পারেন যে, একজন সেনা হওয়া খুবই সম্মানের এবং আরও জানতে পারেন যে, এই ধরনের সেবামূলক কাজ বাইবেলসম্মত দৃষ্টিভঙ্গির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

সেনাবাহিনীতে কাজ করার প্রথম উদাহরণটি পুরাতন নিয়মে দেখাত পাওয়া যায় (আদিপুস্তক ১৪ অধ্যায়)। যখন এলমের রাজা কদর্লায়োম অব্রাহামের ভাইপো লোটকে তার সমস্ত ধন-সম্পদ সুদ্ধ অপহরণ করেছিলেন তখন অব্রাহাম যুদ্ধের শিক্ষা পাওয়া তাঁর ৩১৮ জন দাসকে জড়ো করলেন এবং এলমীয়দের পরাজিত করে লোটকে উদ্ধার করেছিলেন। এখানে আমরা লক্ষ্য করি যে, নির্দোষ লোককে উদ্ধার ও তাকে নিরাপত্তা দেওয়ার মত একটি মহৎ কাজে সশস্ত্র যোদ্ধা নিয়েোগ করা হয়েছিল।

ইস্রায়েল জাতির পরবর্তী ইতিহাসে লক্ষ্য করা যায় যে, তারা একটি স্থায়ী সেনাবাহিনী (যোদ্ধাবাহিনী) গঠন করেছিল। তারা এভাবে চিন্তা করতো যে, ঈশ্বর হলেন স্বর্গীয় একজন যোদ্ধা এবং তিনি তাঁর লোকদের যাদের নিজস্ব সামরিক শক্তি না থাকলেও তাদের তিনি রক্ষা করবেন। আর এই কারণেই ইস্রায়েল জাতি তাদের নিজস্ব একটি স্থায়ী সেনাবাহিনী গঠনে ছিল অত্যন্ত ধীরগতিসম্পন্ন। রাজা শৌল, দায়ূদ ও শলোমন কর্তৃক ইস্রায়েল জাতির রাজনৈতিক পটভূমি আরও শক্তিশালী এবং কেন্দ্রীভূত হওয়ার পরই তাদের একটি নিয়মিত ও স্থায়ী সেনাবাহিনী গঠিত হয়েছিল। রাজা শৌলই প্রথম একটি স্থায়ী সৈন্যদল গঠন করেছিলেন (১শমূয়েল ১৩:২; ২৪:২; ২৬:২ পদ)।

রাজা শৌল যা শুরু করেছিলেন, রাজা দায়ূদ তা-ই চলমান রাখলেন। তিনি যোদ্ধাদের সংখ্যা বৃদ্ধি করলেন এবং যারা তাঁর একান্ত অনুগত ও বিশ্বস্ত ছিল তাদের তিনি অন্য প্রদেশ থেকে ভাড়া করে নিজের কাছে নিয়ে আসলেন (২শমূয়েল ১৫:১৯-২২ পদ) এবং তাঁর প্রধান সেনাপতি যোয়াবের হাতে তাদের ন্যস্ত করলেন। দায়ূদের অধীনে সামরিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে ইস্রায়েল জাতি আরও বেশী আক্রমণাত্মক হয়ে উঠল এবং অন্মোনীয়দের মত অন্যান্য রাজ্যগুলোও ধ্বংস করল (২শমূয়েল ১১:১; বংশাবলি ২০:১-৩ পদ)। দায়ূদ এই সব যোদ্ধাদের নিয়ে ১২ দলে বিভক্ত একটি সামরিক পদ্ধতি চালূ করলেন যেখানে প্রত্যেকটি দলে ২৪,০০০ হাজার যোদ্ধা ছিল যারা সারা বছরব্যাপী এক একটি দল এক এক মাস করে কাজ করত (১বংশাবলি ২৭অধ্যায়)। ইস্রায়েল (যিহূদা) রাজ্য যখন একটি রাজনৈতিক সত্তা হিসাবে টিকে থাকার বিষয়টিতে ক্ষান্তি দিল তখনও এই স্থায়ী সেনাবাহিনী (রাজা শলোমনের মৃত্যুর পর এই রাজ্য ভেঙ্গে গেলেও) খ্রীষ্ট পূর্ব ৫৮৬ অব্দ অবধি চলমান ছিল।

অনুরূপভাবে নতুন নিয়মেও লক্ষ্য করা যায় যে, যখন একজন রোমীয় শতপতি (একশত সেনার উপর নিযুক্ত কর্মকর্তা) যীশুর কাছে এসে নিজেকে নত করলেন তখন যীশু তার এরূপ ব্যবহারে বিস্মৃত হলেন। যীশুর প্রতি এই শতপতির সাড়াদান কর্তৃত্ব বিষয়ে তার বুঝবার সক্ষমতাকে নির্দেশ করে, ঠিক যেভাবে যীশুর প্রতি তার বিশ্বাস ছিল (মথি ৮:৫-১৩ পদ)। যীশু তার (শতপতির) চাকুরীর বিষয়টিকে সর্বসাধারণের মাঝে নিন্দার বিষয় করলেন না। নতুন নিয়মে এমন অনেক শতপতি আছেন যাদের খ্রীষ্টিয়ান হিসাবে, ঈশ্বর ভয়শীল হিসাবে এবং চরিত্রবান হিসাবে প্রশংসা করা হয়েছে (মথি ৮:৫; ২৭:৫৪; মার্ক ১৫:৩৯-৪৫; লূক ৭:২; ২৩:৪৭; প্রেরিত ১০:১; ২১:৩২; ২৮:১৬ পদ)।

স্থান ও পদবী পরিবর্তীত হতে পারে, কিন্তু আমাদের সশস্ত্র যোদ্ধাদের বাইবেলে বর্ণিত শতপতিদের মতই মূল্যায়ন করা প্রয়োজন। যোদ্ধাদের এই চাকুরী ছিল খুবই শ্রদ্ধার ও সম্মানের। উদাহরণ হিসাবে আমরা বলতে পারি যে, পৌল ইপাফ্রদীতকে একজন সহ-খ্রীষ্টিয়ান এবং সহযোদ্ধা হিসাবে বর্ণনা করেছেন (ফিলিপীয় ২:২৫ পদ)। এছাড়াও তিনি ঈশ্বরের সমগ্র যুদ্ধসজ্জা পরিধান করে প্রভুতে শক্তিশালী হওয়ার বিষয়টি বর্ণনা করতে পবিত্র বাইবেলে সামরিক পরিভাষা ব্যবহার করেছেন (ইফিষীয় ৬:১০-২০ পদ) যার মধ্যে যোদ্ধাদের ব্যবহৃত হাতিয়ার, অর্থাৎ শিরস্ত্রাণ, বুকপাটা ও খড়গ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

উপরোক্ত প্রশ্নের উত্তরে আমরা এ কথা বলতে পারি যে, হ্যাঁ, প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সেনাবাহিনীতে সেবা প্রদানের বিষয়ে বাইবেল মত প্রকাশ করে থাকে। যে সমস্ত খ্রীষ্টিয়ান পুরুষ ও মহিলা তাদের দেশের জন্য অত্যন্ত সততা ও সম্মানের সাথে পরিশ্রম করে সেবা প্রদান করেন তারা এ ব্যাপারে নিশ্চিত হতে পারেন যে, তাদের সম্পাদিত এই পবিত্র দায়িত্ব আমাদের সর্বশক্তিমান ঈশ্বর কর্তৃক ক্ষমাপ্রাপ্ত ও সম্মানিত হবে। যারা সেনাবাহিনীতে (সামরিক বাহিনী) সম্মানের সাথে সেবা প্রদান করছেন তারা আমাদের কাছ থেকে শ্রদ্ধা ও ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্যও বটে।



বাংলা হোম পেজে ফিরে যান



সেনাবাহিনীতে (সামরিক বাহিনী) কোন খ্রীষ্টিয়ানের কাজ করা বা সেবা প্রদান করা সম্বন্ধে বাইবেল কী বলে?