স্বর্গে কি বিবাহ হবে?


প্রশ্ন: স্বর্গে কি বিবাহ হবে?

উত্তর:
বাইবেল আমাদের বলে, “পুনরুত্থানে লোকে বিবাহ করে না আর নাতো বিবাহিত হয়; তারা স্বর্গে ঈশ্বরের দেবদূতের ন্যায় থাকে” (মথি 22:30) I যে তার জীবনে একাধিকবার বিবাহ করেছিল - স্বর্গে তার সাথে কার বিবাহ হবে এমন এক প্রশ্নের উত্তরে যীশুর এই উত্তর ছিল (মথি 22:23-28)? স্পষ্টতই স্বর্গে বিবাহের মতন কোনো জিনিস থাকবে না I এর অর্থ এই নয় যে স্বামী এবং স্ত্রী স্বর্গে একে অপরকে আর জানতে পারবে না I এর অর্থ এও নয় যে স্বর্গে স্বামী-স্ত্রীর ঘনিষ্ট সম্পর্ক এখনও থাকতে পারে না I তবে এটি বলতে যা বোঝায় তা হ’ল যে স্বর্গে স্বামী-স্ত্রীর আর বিবাহ হবে না I

খুব সম্ভবত, এটির কোনো প্রয়োজন নেই বলে স্বর্গে কোনো বিবাহ হবে না I ঈশ্বর যখন বিবাহ স্থাপন করেছিলেন, তখন তিনি কিছু প্রয়োজনীয় চাহিদা পূরণের জন্য করেছিলেন I প্রথমে তিনি দেখলেন যে আদমের এক সঙ্গীর প্রয়োজন ছিল I “সদাপ্রভু ঈশ্বর বললেন, ‘মনুষ্যের একাকী থাকা ভালো নয় I আমি তার জন্য তার অনুরূপ সহকারিনী নির্মাণ করি’” (আদিপুস্তক 2:18) I হবা ছিল আদমের একাকীত্বের সমস্যার সমাধান, পাশাপাশি তার একজন “সহায়িকা,” যেমন তার সহকর্মী হিসাবে আসতে এবং তার পাশে থেকে জীবন যাপন করতে একজনের প্রয়োজন ছিল I তবে স্বর্গে একাকীত্ব হবে না, সাহায্যকারীদেরও দরকার নেই I আমরা বহু বিশ্বাসী এবং দেবদুতদের দ্বারা পরিবেষ্টিত হব (প্রকাশিত বাক্য 7:9), এবং সাহচর্যের প্রয়োজনীয়তা সহ, আমাদের সমস্ত চাহিদা পূরণ করা হবে I

দ্বিতীয়ত ঈশ্বর বিবাহকে প্রজনন ক্রিয়া এবং মানুষ দিয়ে পৃথিবীকে ভরাট করার মাধ্যম হিসাবে সৃষ্টি করেছিলেন I স্বর্গ যদিও প্রজনন ক্রিয়ার দ্বারা জনবহুল হবে না I যারা স্বর্গে যায়, তারা সেখানে প্রভু যীশু খ্রীষ্টের প্রতি বিশ্বাসের দ্বারা যায়; তাদেরকে সেখানে পুনরুৎপাদনের মাধ্যমে তৈরী করা হবে না I অতএব স্বর্গে বিবাহের কোনো উদ্দেশ্য নেই, কারণ কোনো প্রজনন ক্রিয়া বা একাকীত্ব নেই I

English
বাংলা হোম পেজে ফিরে যান
স্বর্গে কি বিবাহ হবে?

কিভাবে খুঁজে ...

ঈশ্বর সঙ্গে অনন্তকাল কাটা



ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা লাভ করুন