কিভাবে আমি জানব যে আমার জন্য আমি নিখুঁত জীবনসাথী পেয়েছি?


প্রশ্ন: কিভাবে আমি জানব যে আমার জন্য আমি নিখুঁত জীবনসাথী পেয়েছি?

উত্তর:
কিভাবে “নিখুঁত জীবনসাথীকে” খুঁজে পাওয়া যায়, বা আমাদের পছন্দ মতন বিবাহের সঠিক অংশীদারকে খুঁজে পাওয়ার ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট হওয়াকে বাইবেল সম্বোধন করে না I একটি বিষয় যা ঈশ্বরের বাক্য আমাদের স্পষ্টভাবে বলে তা হ’ল আমরা যেন কোনও অবিশ্বাসীকে বিবাহ না করি (2 করিন্থীয় 6:14-15) I প্রথম করিন্থীয় 7:39 আমাদের স্মরণ করিয়ে দেয় যে, আমরা যখন বিবাহ করতে স্বাধীন থাকি তখন আমাদের কেবল তাদের সাথে বিবাহ করা উচিত যারা ঈশ্বরের কাছে গ্রহণ যোগ্য – অন্য কথায় খ্রীষ্টানদের সাথে I এর বাইরে, কিভাবে আমরা জানব যে আমরা “সঠিক” ব্যক্তিকে বিবাহ করছি এই বিষয়ে বাইবেল নীরব I

তাহলে ঈশ্বর আমাদের জন্য কেন বলেন না এক সাথীর মধ্যে আমাদের কি খোঁজা উচিত? এমন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে কেন আমাদের কাছে আরও অধিক বিশেষত্ব নেই? সত্যটি হ’ল যে বাইবেল একজন খ্রীষ্টান কি এবং কিভাবে আমাদের কার্য করতে হয় সে বিষয়ে এতটাই স্পষ্ট যে বিশেষত্বের প্রয়োজন হয় না I খ্রীষ্টানদের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি সম্পর্কে সমান ধারণ করা উচিত এবং যদি দুজন খ্রীষ্টান তাদের বিবাহ ও খ্রীষ্টের অনুগ্যতের প্রতি সমর্পিত হয়, তবে তারা ইতিমধ্যে সাফল্যের জন্য প্রয়োজনীয় উপাদানগুলির অধিকারী I তবে, যেহেতু আমাদের সমাজ অনেক খ্রীষ্টানদের সাথে ডুবে আছে, তাই বিবাহের আজীবন প্রতিশ্রুতিতে নিজেকে উৎসর্গ করার আগে বিচক্ষণতা ব্যবহার করা বুদ্ধিমানের কাজ হবে I একবার কোনও সম্ভাব্য সাথীর অগ্রাধিকারগুলি চিহ্নিত হয়ে যায় – যদি তিনি পুং/স্ত্রী সত্যই খ্রীষ্ট-সম হতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হন – তবে নির্দিষ্টকরণগুলি সনাক্ত করা এবং তার সাথে মোকাবেলা করা আরও সহজ হয় I

প্রথমত, আমাদের নিশ্চিত করা উচিত যে আমরা বিবাহ করতে প্রস্তুত I আমাদের অবশ্যই এখানে এবং এখনের বাইরে গিয়ে দেখার জন্য যথেষ্ট পরিপক্কতা থাকতে হবে এবং বাকি সারা জীবন এই এক ব্যক্তির সাথে যোগ দিতে নিজেদেরকে প্রতিশ্রুতবদ্ধ করতে সক্ষম হতে হবে I আমাদের এও চিনতে হবে যে বিবাহের জন্য ত্যাগ ও নি:স্বার্থতা প্রয়োজন I বিবাহের আগে একটি দম্পতির স্বামী এবং স্ত্রীর ভূমিকা এবং কর্তব্যগুলি অধ্যয়ন করা উচিত (ইফিষীয় 5:22-31; 1 করিন্থীয় 7:1-16; কলসীয় 3:18-19; তীত 2:1-5; 1 পিতর 3:1-7) I

একটি দম্পতির বিবাহের বিষয়ে আলোচনা করার আগে পর্যাপ্ত সময়ের জন্য একে অপরকে চেনে তা নিশ্চিত করা উচিত I তাদের লক্ষ্য করা উচিত যে অন্য ব্যক্তি কিভাবে বিভিন্ন পরিস্থিতে প্রতিক্রিয়া দেখায়, তিনি কিভাবে তার পরিবার এবং বন্ধুবান্ধবদের সাথে আচরণ করেন এবং কি ধরনের লোকের সাথে সময় কাটান I একজন ব্যক্তির আচরণ তাদের দ্বারা প্রচুরভাবে প্রভাবিত হয় যাদের সে সঙ্গী হয় (1 করিন্থীয় 15:33) I তাদের নৈতিকতা, আর্থিক মূল্যবোধ, শিশু, গির্জার উপস্থিতি এবং অংশগ্রহণ, শ্বশুরবাড়ির সাথে সম্পর্ক এবং কর্মসংস্থান ইত্যাদির বিষয়ে একমত হওয়া উচিত I এগুলি বিবাহের সম্ভাব্য দ্বন্দের ক্ষেত্র এবং এগুলিকে আগে সতর্কতার সাথে বিবেচনা করা উচিত I

অবশেষে, বিবাহ বিবেচনা করা যে কোনও দম্পতির প্রথমে তাদের যাজক বা অন্য প্রশিক্ষিত খ্রীষ্টান পরামর্শদাতার সাথে বিবাহপূর্ব পরামর্শ নেওয়া উচিত I এখানে তারা খ্রীষ্টের প্রতি বিশ্বাসের ভিত্তিতে তাদের বিবাহ গড়ার মূল্যবান সরঞ্জামগুলি শিখবে এবং কিভাবে অনিবার্য দ্বন্দ মোকাবেল করতে হয় তাও তারা শিখবে I এই সমস্ত মানদণ্ড পূরণ হওয়ার পরে, তারা বিবাহের সাথে একসাথে যোগ দিতে চাইলে দম্পতিদের প্রার্থনা করে সিদ্ধান্ত নিতে প্রস্তুত হতে হবে I আমরা যদি আন্তরিকভাবে ঈশ্বরের ইচ্ছায় প্রার্থনা করি, তবে তিনি আমাদের পথ দেখাবেন (হিতোপদেশ 3:5-6) I

English
বাংলা হোম পেজে ফিরে যান
কিভাবে আমি জানব যে আমার জন্য আমি নিখুঁত জীবনসাথী পেয়েছি?

কিভাবে খুঁজে ...

ঈশ্বর সঙ্গে অনন্তকাল কাটা



ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা লাভ করুন