যখন তিনি করলেন তো ঈশ্বর যীশুকে কেন পাঠালেন? আগে কেন নয়? পরে কেন নয়?


প্রশ্ন: যখন তিনি করলেন তো ঈশ্বর যীশুকে কেন পাঠালেন? আগে কেন নয়? পরে কেন নয়?

উত্তর:
“কিন্তু কাল সম্পূর্ণ হলে ঈশ্বর তাঁর পুত্রকে পাঠালেন, স্ত্রী থেকে জাত, ব্যবস্থার অধীনে জাত (গালাতীয় 4:4) I এই পদটি ঘোষণা করে যে ঈশ্বর পিতা তাঁর পুত্রকে “কাল সম্পূর্ণ হলে” পাঠালেন I প্রথম শতাব্দীর সময়ে অনেক কিছু জিনিস সেখানে ঘটছিল যে, কম পক্ষে মানবীয় যুক্তির দ্বারা, মনে হয় তখন খ্রীষ্টের আসার পক্ষে এটিকে আদর্শ করেছিল I

1) সেই সময়ে যিহূদিদের মধ্যে এক বিরাট প্রত্যাশ্যা ছিল যে মশীহ আসবেন I ইস্রায়েলের উপরে রোমীয় শাসন যিহূদিদের মশীহের আগমনের জন্য ক্ষুধার্ত করেছিল I

2) রোম তার সরকারের অধীনে বেশিরভাগকে একত্রিত করেছিল, বিভিন্ন দেশের মধ্যে ঐক্যের এক ভাবনাকে দিয়েছিল I এছাড়াও, সাম্রাজ্যটি আপেক্ষিকভাবে শান্তিপূর্ণ হওয়ার ফলে, ভ্রমণ করা সম্ভব ছিল, আদি খ্রীষ্টানদের সুসমাচার প্রসার করতে অনুমতি দেয় I অন্যান্য অঞ্চলে ভ্রমণ করার এই জাতীয় স্বাধীনতা অসম্ভব ছিল I

3) রোম যখন সামরিকভাবে জয়লাভ করেছিল, গ্রীস তখন সংস্কৃতিগতভাবে জয়লাভ করেছিল I গ্রীক ভাষার একটি “সাধারণ” রূপ (শাস্ত্রীয় গ্রীক থেকে পৃথক) বাণিজ্যিক ভাষা ছিল এবং সর্বদা সাম্রাজ্য জুড়ে বলা হত, যা একটি সাধারণ ভাষার মাধ্যমে বিভিন্ন লোকেদের অনেক গোষ্ঠী সমূহের কাছে সুসমাচার সঞ্চার করতে সম্ভব করেছিল I

4) ঘটনা যে অনেক মিথ্যা প্রতিমাগুলি রোমীয় বিজেতাদের উপরে তাদেরকে জয় দিতে ব্যর্থ হয়েছিল যা অনেককে ওই প্রতিমাদের উপাসনা করা পরিত্যাগ করতে বাধ্য করেছিল I একই সময়ে, অধিক সংস্কৃতি সম্পন্ন নগরগুলিতে, তখনকার গ্রীক দর্শন এবং বিজ্ঞান অন্যদের আধ্যাত্মিকভাবে শুন্য করেছিল সেই একই ভাবে যেমন করে কমিউনিস্ট সরকারগুলির নাস্তিকবাদ আজ একটি আধ্যাত্মিক শুন্যতা ছেড়ে যায় I

5) তখনকার রহস্য ধর্মগুলি এক উদ্ধারকর্তা-ঈশ্বরের উপর জোর দিয়েছিল এবং উপাসকদের রক্তাক্ত বলিদানের প্রয়োজন ছিল, এইরূপে খ্রীষ্টের সুসমাচারকে তৈরী করেছিল যা তাদের কাছে বিশ্বাসযোগ্য একটি চূড়ান্ত বলিদানকে জড়িত করেছিল I গ্রীকরাও প্রাণের অমরত্বের উপরে বিশ্বাস করেছিল (তবে দেহের উপরে নয়) I

6) রোমীয় সেনাবাহিনী প্রদেশগুলি থেকে সৈন্যদের নিযুক্ত করেছিল, এই লোকেদের রোমীয় সংস্কৃতি এবং ধারণাগুলির (যেমন সুসমাচার) প্রতি পরিচিত করেছিল যেটি তখনও বাহ্যিক প্রদেশগুলিতে পৌঁছায় নি I ব্রিটেনে সুসমাচারের প্রথম দিকের পরিচয় ছিল সেখানে অবস্থিত খ্রীষ্টান সৈন্যদের প্রচেষ্টার ফলস্বরূপ I

উপরের বিবৃতিগুলি সেই সময়ের দিকে তাকিয়ে পুরুষদের উপরে ভিত্তি করে তৈরী করা হয়েছে এবং কেন ইতিহাসের সেই নির্দিষ্ট বিন্দুটি খ্রীষ্টের আসার জন্য ভাল সময় ছিল তা নিয়ে অনুমান করে I কিন্তু আমরা বুঝি যে ঈশ্বরের পথ আমাদের পথ নয় (যিশাইয় 55:8), এবং কেন তিনি তার পুত্রকে প্রেরণের জন্য সেই নির্দিষ্ট সময়টি বেছে নিয়েছিলেন এইগুলি তার কারণ হতেও পারে বা নাও হতে পারে I গালাতীয় 3 ও 4 এর প্রেক্ষাপট থেকে এটি স্পষ্ট যে ঈশ্বর যিহূদি ব্যবস্থা দ্বারা মশীহর আগমনের জন্য প্রস্তুত করতে পারে এমন একটি ভিত্তি স্থাপনের চেষ্টা করেছিলেন I ব্যবস্থাটি মানুষকে তাদের পাপপূর্ণতার গভীরতা বুঝতে সহায়তা করতে তৈরী করা হয়েছিল I (তার মধ্যে তারা ব্যবস্থা পালন করতে অসমর্থ ছিল) যাতে তারা হয়ত সেই পাপের প্রতিকারকে যীশু মশীহর মাধ্যমে আরও সহজে স্বীকার করতে পারে (গালাতীয় 3:22-23, রোমীয় 3:19-20) I লোকেদেরকে মশীহ হিসাবে যীশুর দিকে পরিচালিত করতে ব্যবস্থাকে “ভারপ্রাপ্ত” (গালাতীয় 3:24) করা হয়েছিল ইহা এটিকে মশীহর বিষয়ে এর অনেক ভাববাদী সমূহের মাধ্যমে করেছিল যাকে যীশু পরিপূর্ণ করেছিলেন I এর সাথে যুক্ত করুন এমন বলি সংক্রান্ত পদ্ধতি যা পাপের জন্য ত্যাগের পাশাপাশি নিজের অপ্রতুলতার প্রতি ইঙ্গিত করে (প্রতিটি ত্যাগের সাথে সর্বদা পরবর্তী অতিরিক্তগুলির প্রয়োজন হয়) I পুরনো নিয়মের ইতিহাস আবারও বিভিন্ন ঘটনাবলী এবং ধর্মীয় ভোজনগুলির দ্বারা খ্রীষ্টের ব্যক্তি এবং কার্যের চিত্র সর্বদা চিত্রিত করেছিল (যেমন ইসহাককে সমর্পণের আব্রাহামের ইচ্ছা, বা মিশর থেকে যাত্রার সময়ে নিস্তারপর্বের বিবরণ ইত্যাদি) I

পরিশেষে, খ্রীষ্ট এসেছিলেন যখন তিনি নির্দিষ্ট ভবিষ্যদ্বাণী পূর্ণ করেছিলেন I দানিয়েল 9:24-27 “সত্তর সপ্তাহ” বা সত্তর “সাত” এর কথা বলে I প্রেক্ষাপট থেকে, এই “সপ্তাহ” বা “সাত” গুলি সাত দিনের নয় সাত বছরগুলির সমষ্টিকে বোঝায় I আমরা ইতিহাসকে পরীক্ষা করতে পারি এবং প্রথম 69 সপ্তাহের বিবরণগুলিকে সারিবদ্ধ করতে পারি (সত্তরতম সপ্তাহটি ভবিষ্যতের বিন্দুতে ঘটবে) I “যিরূশালেমকে পুনস্থাপন ও নির্মাণের আদেশের অগ্রগতি” দিয়ে সত্তর সপ্তাহের উল্টো গণনা শুরু হয় (পদ 25) I এই আদেশটিকে 445 খ্রীষ্টপূর্বাব্দে অর্তক্ষস্ত লঙ্গিমানাস দ্বারা দেওয়া হয়েছিল (দেখুন নহিমিয় 2:5) I সাতটি “সাত” যুক্ত 62 “সাত,” বা 69X7 বছর, ভাববাণী বলে, “অভিষিক্ত ব্যক্তিকে বিচ্ছিন্ন করা হবে আর কিছুই বাকি থাকবে না I “এক প্লাবনের ন্যায় শেষ আসবে” (অর্থাৎ ভীষণ ধ্বংস) (পদ 26) I এখানে আমাদের কাছে ক্রুশের উপরে উদ্ধারকর্তার মৃত্যুর একটি অভ্রান্ত উল্লেখ আছে I এক শতাব্দী আগে স্যার রবার্ট অ্যান্ডার্সন তার কামিং প্রিন্স বইয়ের মধ্যে ‘ভবিষ্যদ্বাণীপূর্ণ বছরগুলিকে” ব্যবহার করে, লিপ ইয়ারগুলিকে, ক্যালেন্ডারের ত্রুটিগুলি, খ্রীষ্টপূর্বাব্দ থেকে খ্রীষ্টাব্দে পরিতবর্তন, ইত্যাদিকে অনুমতি দিয়ে, 69 সপ্তাহের বিশদ বিবরণ দিয়েছেন এবং আবিষ্কার করেছেন যে তার মৃত্যুর পাঁচ দিন আগে যীশুর বিজয়ী প্রবেশের ঠিক দিনে 69 সপ্তাহটি শেষ হয়েছিল I কেউ এই সময়সুচিটি ব্যবহার করুন বা না করুন, মূল বিষয়টি হ’ল খ্রীস্টের অবতারের সময়টি 500 বছর আগে দানিয়েলের দ্বারা লিপিবদ্ধ এই বিশদ ভবিষ্যদ্বাণীটির সাথে জড়িত I

খ্রীষ্টের অবতারের সময়টি এমন ছিল যে সেই সময়ের লোকেরা তাঁর আসার জন্য প্রস্তুত ছিল I তখন থেকে প্রত্যেক শতাব্দীর মানুষের কাছে পর্যাপ্ত প্রমাণের চেয়ে আরও বেশি কিছু রয়েছে যে যীশু প্রকৃতপক্ষে তার দেওয়া শাস্ত্রের পূর্ণতার মাধ্যমে প্রতিশ্রুত মশীহ ছিলেন যা তার আগমনকে বিশদভাবে চিত্রিত ও ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছিল I

English
বাংলা হোম পেজে ফিরে যান
যখন তিনি করলেন তো ঈশ্বর যীশুকে কেন পাঠালেন? আগে কেন নয়? পরে কেন নয়?

কিভাবে খুঁজে ...

ঈশ্বর সঙ্গে অনন্তকাল কাটা



ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা লাভ করুন