ঈশ্বর কেন আমাদেরকে চারটি সুসমাচার দিলেন?


প্রশ্ন: ঈশ্বর কেন আমাদেরকে চারটি সুসমাচার দিলেন?

উত্তর:
ঈশ্বর কেন আমাদেরকে কেবল একটির পরিবর্তে চারটি সুসমাচার দিলেন সেই বিষয়ে কয়েকটি যুক্তি এখানে রয়েছে:

1) খ্রীষ্টের আরও একটি সম্পূর্ণ চিত্র দিতে I সম্পূর্ণ বাইবেল যখন ঈশ্বরের দ্বারা অনুপ্রাণিত (2 তীমথিয় 3:16), তিনি তাদের লেখার মাধ্যমে তাঁর উদ্দেশ্যগুলি সম্পাদন করতে বিভিন্ন পৃষ্ঠভূমি এবং ব্যক্তিত্ব সহ মানব লেখকদের ব্যবহার করেছিলেন I সুসমাচার লেখকদের প্রত্যেকেরই তাঁর সুসমাচারের পিছনে একটি স্বতন্ত্র উদ্দেশ্য ছিল এবং সেই উদেশ্যগুলি সম্পাদন করার ক্ষেত্রে, প্রতিটি ব্যক্তি যীশু খ্রীষ্টের ব্যক্তিত্ব এবং পরিচর্যার বিভিন্ন দিককে জোর দিয়েছিলেন I

মথি এক হিব্রু শ্রোতাদের কাছে লিখছিলেন, এবং তাঁর উদ্দেশ্য সমূহের মধ্যে একটি ছিল যীশুর বংশ বৃতান্ত এবং পুরনো নিয়মের ভবিষ্যদ্বাণীগুলির পরিপূর্ণতাকে দেখান যে তিনি দীর্ঘ-প্রতীক্ষিত মশীহ ছিলেন, এবং এইরূপে, এতে বিশ্বাস করা উচিত I মথি যার উপর জোর দিয়েছিলেন তা হ’ল যীশু প্রতিশ্রুত রাজা, “দায়ূদ পুত্র,” ইসরায়েলের সিংহাসনের উপরে চিরকাল উপবিষ্ট থাকবেন (মথি 9:27; 21:9) I

বার্নাবাসের এক খুড়তোত ভাই, মার্ক (কলসীয় 4:10), খ্রীষ্টের জীবনের ঘটনাবলীর পাশাপাশি প্রেরিত পিতরের বন্ধু হওয়ার প্রত্যক্ষদর্শী ছিলেন I মার্ক এক অ-ইহূদী শ্রোতাদের জন্য লিখেছিলেন, যেমনটি তিনি ইহূদী পাঠকদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি অন্তর্ভুক্ত না করে প্রকাশ করেছিলেন (বংশ বৃত্তান্ত, খ্রীষ্টের তাঁর সময়ের ইহূদী নেতাদের সাথে বিতর্কগুলি, পুরনো নিয়মের প্রতি বার বার উল্লেখ সমূহ, ইত্যাদি) মার্ক দুঃখভোগী হিসাবে খ্রীষ্টের উপরে জোর দিয়েছেন, এমন একজন যিনি সেবা পেতে নয় তবে সেবা করতে এবং অনেকের জন্য মুক্তির এক মূল্য রূপে জীবন দিতে এসেছিলেন (মার্ক 10:45) I

“প্রিয় চিকিৎসক” লুক (কলসীয় 4:14 KJV), সুসমাচার প্রচারক এবং প্রেরিত পৌলের সঙ্গী, লুকের সুসমাচার এবং প্রেরিতের কার্য উভয় লিখেছিলেন I লুক নতুন নিয়মের একমাত্র অ-ইহূদী লেখক I যারা তাঁর লেখাগুলি বংশানুক্রমিক এবং ঐতিহাসিক গবেষণায় ব্যবহার করেছেন তাদের দ্বারা তিনি দীর্ঘদিনের পরিশ্রমী মাস্টার ইতিহাসবিদ হিসাবে গৃহীত হয়েছেন I একজন ঐতিহাসিক হিসাবে তিনি বলেছেন যে প্রত্যক্ষদর্শীদের প্রতিবেদনের ভিত্তিতে খ্রীষ্টের জীবনের একট সুশৃঙ্খল বিবরণ রচনা করা তাঁর উদ্দেশ্য (লুক 1:1-4) I যেহেতু তিনি কিছু বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত একজন অ-ইহূদী থীয়ফিলাসের উপকারের জন্য নির্দিষ্টভাবে লিখেছিলেন, তাই তার সুসমাচারটি একটি অ-ইহূদী শ্রোতার কথা মাথায় রেখে রচিত হয়েছিল এবং তার অভিপ্রায়টি প্রমাণ করে যে একজন খ্রীষ্টানের বিশ্বাস ঐতিহাসিকভাবে নির্ভরযোগ্য এবং যাচাইযোগ্য ঘটনাবলীর উপরে নির্ভরশীল I লুক প্রায়শই খ্রীষ্টকে “মানব পুত্র” বলে উল্লেখ করেছেন, তাঁর মানবতার উপরে জোর দিয়েছিলেন এবং তিনি অন্যান্য অনেক বিবরণ ভাগ করেন যা অন্য সুসমাচারের বিবরণগুলিতে পাওয়া যায় না I

যোহনের সুসমাচার, প্রেরিত যোহন দ্বারা লিখিত, অন্য তিনটি সুসমাচার থেকে পৃথক এবং এতে খ্রীষ্টের ব্যক্তি এবং বিশ্বাসের অর্থ সম্পর্কিত অনেক ধর্মতাত্ত্বিক বিষয়বস্তু রয়েছে I মথি, মার্ক এবং লুককে তাদের অনুরুল শৈলী এবং বিষয়বস্তুর কারণে এবং খ্রীষ্টের জীবনের সংক্ষিপ্তসার দেওয়ার কারণে “সিনোপ্টিক গসপেল” হিসাবে উল্লেখ করা হয় I যোহনের সুসমাচারটি যীশুর জন্ম বা পার্থিব পরিচর্যার সাথে নয়, ঈশ্বরের পুত্রের মানুষ হওয়ার আগে তাঁর ক্রিয়াকলাপ এবং বৈশিষ্ট্য দিয়ে শুরু হয় (যোহন 1:14) I যোহনের সুসমাচার খ্রীষ্টের দেবত্বের উপরে জোর দেয়, যেমন “বাক্য ছিল ঈশ্বর” (যোহন 1:1), “জগতের উদ্ধারকর্তা” (যোহন 4:42), “ঈশ্বরের পুত্র” (বার বার ব্যবহৃত) এবং “প্রভু ... এবং ঈশ্বর” (যোহন 20:28) I যোহনের সুসমাচারে, যীশু তাঁর বিভিন্ন দেবত্বকে বেশ কয়েকটি “আমি আছি” বিবৃতি দিয়েও নিশ্চিত করেছেন; তাদের মধ্যে যোহন 8:58 এর মধ্যে তিনি উল্লেখ করেছেন যে “... আব্রাহামের পূর্বাবধি আমি আছি” (তুলনা করুন যাত্রাপুস্তক 3:13-14) I তবে এছাড়াও যোহন যীশুর মানবিকতার ঘটনার উপরে জোর দেন, তার সময়ের ধর্মীয় সম্প্রদায়, জ্ঞানবাদীদের ত্রুটি দেখাতে চেয়েছিলেন, যারা খ্রীষ্টের মানবতায় বিশ্বাসী ছিল না I যোহন সুসমাচার লেখার জন্য তাঁর সামগ্রিক উদ্দেশ্যটি ব্যাখ্যা করেন: “যীশু তাঁর শিষ্যদের উপস্থিতিতে আরও অনেক অলৌকিক চিহ্ন করেছিলেন, যা এই বইতে লিপিবদ্ধ নেই I তবে এগুলি লেখা হয়েছে যাতে আপনি বিশ্বাস করতে পারেন যে যীশু খ্রীষ্ট ঈশ্বরের পুত্র এবং যেন বিশ্বাস করার দ্বারা আপনি তাঁর নামে জীবন পেতে পারেন (যোহন 20:10-31) I

এইরূপে, খ্রীষ্টের চারটি স্বতন্ত্র এবং তবুও সমানভাবে নির্ভুল বিবরণ পাওয়ার পরে, তাঁর ব্যক্তি এবং পরিচর্যার বিভিন্ন দিক প্রকাশিত হয় I বর্ণনার বাইরে যার আরও সম্পূর্ণ চিত্র গঠনের জন্য প্রতিটি বিবরণ একসাথে বোনা টেপেস্ট্রিগুলিতে ভিন্ন-রঙের সুতোর মতন হয়ে যায় I এবং যখন আমরা যীশু খ্রীষ্টের বিষয়ে কখনই পুরোপুরি বুঝতে পারি না (যোহন 20:30), চারটি সুসমাচারের মাধ্যমে আমরা তাঁর সম্বন্ধে যথেষ্ট পরিমান জানতে পারি যে তিনি কে এবং আমাদের জন্য তিনি কি করেছেন যাতে আমরা তাতে বিশ্বাসের মাধ্যমে জীবন পেতে পারি I

2) আমাদের তাদের বিবরণগুলির সত্যতা যাচাই করতে I প্রথম থেকে বাইবেল বলেছে, যে এককভাবে প্রত্যক্ষদর্শীর স্বাক্ষ্যর ভিত্তিতে কোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনের আদালতে রায় দেওয়া উচিত ছিল না তবে নুন্যতম সংখ্যা হিসাবে দুই বা তিনজনের প্রয়োজন ছিল (দ্বিতীয় বিবরণ 19:15) I তবুও যীশু খ্রীষ্টের ব্যক্তি এবং পার্থিব পরিচর্যা সম্পর্কে বিভিন্ন বিবরণে থাকা আমাদের তাঁর বিষয়ে যে তথ্য রয়েছে তার যথার্ততা মূল্যায়ন করতে সক্ষম করে I

আইনের আদালতে নির্ভরযোগ্য প্রমাণ গঠনের বিষয়ে সুপরিচিত ও স্বীকৃত কর্ত্তৃপক্ষ সাইমন গ্রীনলীফ চারটি সুসমাচারকে আইনী দৃষ্টিকোণ থেকে পরীক্ষা করেছিলেন I তিনি উল্লেখ করেছিলেন যে চারটি সুসমাচারের মধ্যে প্রত্যক্ষদর্শীর বিবরণের ধরণ দেওয়া হয়েছে – বিবরণগুলি যা সম্মত হয়, তবে প্রতিটি লেখক বাদ দিয়ে বা অন্যদের থেকে আলাদা বিবরণ যুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন – যা নির্ভরযোগ্য, স্বতন্ত্র উৎসগুলির আদর্শ যা দৃঢ় প্রমাণ হিসাবে আইনের আদালতে গৃহীত হবে I সুসমাচারগুলিতে একই দৃষ্টিকোণ থেকে একই বিবরণ সহ একই তথ্য লেখা থাকলে, এটি মিলনের ইঙ্গিত দেয়, অর্থাৎ, এমন একটি সময় ছিল যখন লেখকেরা তাদের লেখাগুলি বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে করার জন্য “তাদের গল্প সোজা করার জন্য” আগেই একত্রিত হয়েছিল I সুসমাচারগুলির মধ্যে পার্থক্য, এমনকি প্রথম পরীক্ষার পরে বিবরণগুলির আপাত বিরোধিতাও লেখার স্বতন্ত্র প্রকৃতির সঙ্গে কথা বলে I এইরূপে, চারটি সুসমাচারের বিবরণগুলির স্বতন্ত্র প্রকৃতি, তাদের তথ্যের সাথে একমত হলেও দৃষ্টিকোণ ভিন্ন, বিস্তারিত পরিমাণ এবং কোন ঘটনাগুলি লিপিবদ্ধ করা হয়েছিল তা ইঙ্গিত করে যে সুসমাচারগুলিতে যেমন খ্রীষ্টের জীবন ও পরিচর্যার নথি রয়েছে তা তথ্যপূর্ণ ও নির্ভরযোগ্য I

3) যারা পরিশ্রমী সন্ধানী তাদের পুরষ্কৃত করা I সুসমাচারগুলির প্রত্যেকটির স্বতন্ত্র অধ্যয়ন দ্বারা অনেক কিছু অর্জন করা যায় I তবে এখনও যীশুর পরিচর্যার নির্দিষ্ট ঘটনাগুলির বিভিন্ন বিবরণগুলির তুলনা ও বৈসাদৃশ্য করার মাধ্যমে আরও অধিক কিছু অর্জন করা যেতে পারে I উদাহরণস্বরূপ মথি 14 এর মধ্যে 5000 কে খাওয়ানো এবং যীশুর জলের উপর দিয়ে চলার বিবরণ আমাদের দেওয়া হয়েছে I মথি 14:22 এর মধ্যে আমাদের বলা হয়েছে যে “যীশু শিষ্যদের নৌকায় উঠতে এবং তাঁর সামনে অন্য দিকে যেতে বাধ্য করেছিলেন যখন তিনি জনতাকে বরখাস্ত করেছিলেন I” কেউ জিজ্ঞাসা করতে পারেন তিনি কেন এমন করলেন? মথির বিবরণে কোনো আপাত কারণ দেওয়া হয় নি I কিন্তু আমরা যখন মার্ক 6 এর বিবরণের সাথে এটিকে একত্রিত করি তখন আমরা দেখতে পাই যে শিষ্যরা দুজন দুজন করে পাঠানোর সময় তাঁর দেওয়া কর্ত্তৃত্বের দ্বারা ভূতদের তাড়িয়ে দিয়ে এবং লোকদের নিরাময় করে ফিরে এসেছিলেন I কিন্তু তারা তাদের জায়গা ভুলে “বড় মাথা” নিয়ে ফিরে এসেছিল এবং তাঁকে নির্দেশ দেওয়ার জন্য এখন প্রস্তুত ছিল (মথি 14:15) I সুতরাং যীশু তাদের গালীল সমুদ্রের অপর পাড়ে যাওয়ার জন্য প্রেরণ করার সময়ে, যীশু তাদের কাছে দুটি বিষয় প্রকাশ করেছিলেন I তারা ভোর বেলা অবধি নিজস্ব স্বনির্ভরতায় বাতাস ও তরঙ্গের বিরুদ্ধে লড়াই করে (মার্ক 6:48-50, তারা সেই 1 কে দেখতে শুরু করে, ) I তারা তাদের নিজের যোগ্যতায় ঈশ্বরের পক্ষে কিছুই অর্জন করতে পারে না এবং 2) যদি তারা তাঁকে ডাকে এবং তাঁর শক্তির উপরে নির্ভরশীল হয়ে বাস করে তবে কিছুই অসম্ভব নয় I ঈশ্বরের বাক্যের অধ্যবসায়ী শিক্ষার্থী যিনি শাস্ত্রের সাথে শাস্ত্রের তুলনা করার জন্য সময় নেন তাদের দেখা অনুরূপ “রত্ন” সমেত অনেকগুলি অধ্যায় রয়েছে I

English
বাংলা হোম পেজে ফিরে যান
ঈশ্বর কেন আমাদেরকে চারটি সুসমাচার দিলেন?

কিভাবে খুঁজে ...

ঈশ্বর সঙ্গে অনন্তকাল কাটা



ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা লাভ করুন