আমরা কী স্বর্গে আমাদের বন্ধুদের এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের দেখতে পাব ও তাদের চিনতে পারব?



প্রশ্ন: আমরা কী স্বর্গে আমাদের বন্ধুদের এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের দেখতে পাব ও তাদের চিনতে পারব?

উত্তর:
এমন অনেক লোক আছে যারা বলে যে, তারা যখন স্বর্গে যাবে তখন তারা প্রথমেই তাদের আগে যাওয়া বন্ধু-বান্ধব ও প্রিয়জনদের দেখতে চাইবে। অনন্তকালে আমাদের বন্ধু-বান্ধবদের এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করার, তাদের জানার এবং তাদের সাথে সময় কাটানোর জন্য প্রচুর সময়া পাওয়া যাবে। যাহোক, আমরা যখন স্বর্গে যাক তখন আমাদের আলোকপাত করা এই বিষয়টিই প্রধান কোন বিষয় হবে না। আমরা ঈশ্বরের প্রশংসা-আরাধনায় এবং স্বর্গের সৌন্দয উপভোগ করার মত আরও অনেক বেশী কিছুর অধিকারী হব। আমাদের প্রিয়জনদের সাথে পুনর্মিলনের বিষয়টি আমাদের জীবনে ঈশ্বরের অনুগ্রহ এবং মহিমা, তাঁর আশ্চয ভালবাসা এবং তাঁর শক্তিশালী কাজের সঙ্গে সঙ্গে পূর্ণতা লাভ করে। আমরা প্রচুর আনন্দ-উল্লাস করব, কারণ আমরা অন্যান্য বিশ্বাসীদের সাথে বিশেষ করে পৃথিবীতে যাদের ভালবাসতাম তাদের সাথে একত্রে প্রভুর প্রশংসা ও আরাধনা করতে পারব।

আমরা আমাদের এই জীবনের পরে পরকালে অন্য লোকদের চিহ্নিত করতে পারব কী পারব না সে বিষয়ে বাইবেল কী বলে? ভূতড়িয়া স্ত্রীলোকটি যখন শমূয়েলকে মৃতস্থান থেকে তুলে এনেছিল তখন রাজা শৌল তাঁকে চিনতে পেরেছিলেন (১শমূয়েল ২৮:৮-১৭ পদ)। দায়ূদের শিশু সন্তানটি মারা গেলে পর তিনি ঘোষণা করলেন, “আমি তার কাছে যাব, কিন্তু সে আমার কাছে ফিরে আসবে না” (২শমূয়েল ১২:২৩ পদ)। দায়ূদের সন্তানটি শিশু অবস্থায় মারা যাওয়ার ঘটনাটি তাকে দুঃখ দিলেও তিনি এই প্রত্যাশা রাখলেন যে, স্বর্গে তিনি তার ছেলেকে চিনতে পারবেন। লূক ১৬:১৯-৩১ পদে উল্লেখিত অব্রাহাম, লাসার এবং ধনী লোক- এই তিনজনকে মৃত্যুর পরে সনাক্ত করা গিয়েছিল। যীশুর উজ্জ্বল রূপ ধারণ করার সময়ে মোশি ও এলিয়কে চিনতে পারা গিয়েছিল (মথি ১৭:৩-৪ পদ)। এই সব উদাহরণের মধ্য দিয়ে বাইবেল এটিই নির্দেশ করে যে, মুত্যুর পরে আমাদেরও চেনা যাবে।

বাইবেল এ কথা ঘোষণা করে যে, স্বর্গে পৌঁছানোর পর আমরা “তাঁরই [যীশুর] মত হব, কারণ তিনি আসলে যা, সেই চেহারাতেই আমরা তাঁকে দেখতে পাব” (১যোহন ৩:২ পদ)। আমাদের জাগতিক দেহ প্রথম মানব আদমের মত বটে, কিন্তু আমরা যখন পুনরুত্থিত হব তখন আমাদের সেই দেহ হবে খ্রীষ্টের মত মহিমান্বিত (১করিন্থীয় ১৫:৪৭ পদ)। “আমরা যেমন সেই মাটির মানুষের মত হয়েছি ঠিক তেমনি সেই স্বর্গের মানুষের মতও হব। যা নষ্ট হয় তাকে কাপড়ের মত করে এমন কিছু পরতে হবে যা কখনও নষ্ট হয় না। আর যা মরে যায় তাকে এমন কিছু পরতে হবে যা কখনও মরে না” (১করিন্থীয় ১৫:৪৯,৫৩ পদ)। যীশু পুনরুত্থিত হবার পরে অনেকেই তাঁকে চিনতে পেরেছিল (যোহন ২০:১৬,২০; ২১:১২; ১করিন্থীয় ১৫:৪-৭ পদ)। যীশুকে যদি তাঁর মহিমান্বিত দেহে চেনা যায় তাহলে আমাদেরও আমাদের মহিমান্বিত দেহে চেনা যাবে। স্বর্গের মহিমাপূর্ণ পরিবেশে আমরা আমাদের প্রিয়জনদের চিনতে সক্ষম হলেও স্বর্গ কিন্তু ঈশ্বর সম্বন্ধে অনেক বেশী কিছু এবং আমাদের সম্বন্ধে অল্প কিছু প্রকাশ করে থাকে। এটি কতই না আনন্দের বিষয় হবে যখন আমরা আমাদের প্রিয়জনদের সাথে স্বর্গে একত্রিত হব এবং অনন্তকাল ধরে তাদের সাথে ঈশ্বরের প্রশংসা-আরাধনা করব।



বাংলা হোম পেজে ফিরে যান



আমরা কী স্বর্গে আমাদের বন্ধুদের এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের দেখতে পাব ও তাদের চিনতে পারব?