বিয়ের আগে পূর্ব নির্ধারিত দিনক্ষণে দেখা করা/প্রণয় প্রার্থনা করা (ডেটিং করা) সম্পর্কে বাইবেল কী বলে?



প্রশ্ন: বিয়ের আগে পূর্ব নির্ধারিত দিনক্ষণে দেখা করা/প্রণয় প্রার্থনা করা (ডেটিং করা) সম্পর্কে বাইবেল কী বলে?

উত্তর:
বাইবেলের কোথাও “প্রণয় প্রার্থনা করা” এবং “পূর্বনির্দিষ্ট দিনক্ষণে দেখা করা”/“ডেটিং করা” শব্দ দু’টি পাওয়া না গেলেও বিয়ে করার আগে আমরা যারা খ্রীষ্টিয়ান তাদের কিরূপ জীবন যাপন করতে হবে সে সম্পর্কে বাইবেলে কিছু আচরণবিধি দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে প্রথম বিষয়টি হলো আমাদের অবশ্যই কোন ছেলে বা মেয়ের প্রণয় প্রার্থনা করা বা ডেটিং করার ব্যাপারে জাগতিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে নিজেদের আলাদা রাখতে হবে। কারণ এ ব্যাপারে ঐশ্বরিক দৃষ্টিভঙ্গি জাগতিক দৃষ্টিভঙ্গির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয় (২পিতর ২:২০ পদ)। জাগতিক দৃষ্টিভঙ্গি যখন আমাদের আষ্টেপৃষ্ঠে বেঁধে রাখে তখন এক্ষেত্রে আমাদের যে বিষয়টির উপর সবচেয়ে বেশী জোর দেওয়া ও আবিস্কার করা প্রয়োজন তা হলো কোন ছেলে বা মেয়ের প্রতি যে কোন ধরনের অঙ্গিকার করার আগে তার চরিত্র সম্পর্কে খোঁজ নেওয়া। আমাদের খুঁজে দেখা উচিত ঐ ছেলে বা মেয়ে খ্রীষ্টের মধ্য দিয়ে নতুন জন্ম লাভ করেছে কি না (যোহন ৩:৩-৮ পদ) এবং ঐ ছেলে বা মেয়ে খ্রীষ্টের মত একই ধরনের চিন্তা-ভাবনা তার জীবন যাপনের মধ্য দিয়ে প্রকাশ করে কি না (ফিলিপীয় ২:৫ পদ)। বিয়ের আগে ছেলে বা মেয়ের সাথে দেখা করা কিংবা প্রণয়-প্রার্থনা করার চূড়ান্ত লক্ষ্য হওয়া উচিত একজন সঠিক জীবনসঙ্গী খুঁজে বের করা। বাইবেল আমাদের বলে যে, খ্রীষ্টিয়ান হিসাবে আমাদের অবশ্যই অবিশ্বাসী কাউকে বিয়ে করা উচিত নয় (২করিন্থীয় ৬:১৪-১৫ পদ), কারণ হলো, এমনটি করলে তা খ্রীষ্টের সাথে আমাদের যে সম্পর্ক রয়েছে তা দুর্বল করে ফেলতে পারে এবং এটি আমাদের নৈতিকতা এবং আদর্শের সাথে আপোষ করার একটি বিষয়ে পরিণত হতে পারে।

কারও সাথে দেখা করা কিংবা কারও কাছে প্রণয় প্রার্থনা করা যা-ই হোক না কনে যখন কেউ একজন কোন অঙ্গীকারকৃত সম্পর্কে জড়িত হয় তখন এটি মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে, সব কিছুর ঊর্ধ্বে প্রভুকে ভালবাসতে হবে (মথি ১০:৩৭ পদ)। কোন ব্যক্তির পাপ-স্বভাবের মধ্যকার “সব কিছু” অথবা তার জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বলে বিবেচিত বিষয়গুলো হলো এক ধরনের প্রতিমাপূজা যা অবশ্যই পাপ বলে গণ্য (গালাতীয় ৫:২০; কলসীয় ৩:৫ পদ)। এছাড়াও আমরা আমাদের দেহকে বিবাহপূর্ব যৌনাচার/যৌনমিলনের জন্য ছেড়ে দিত পারি না (১করিন্থীয় ৬:৯,১৩; ২তীমথিয় ২:২২ পদ)। যৌন-সম্পর্ক বিষয়ক অনৈতিকতা শুধুমাত্র ঈশ্বরের বিরুদ্ধে করা পাপই নয়, বরং তা আমাদের নিজেদের দেহের বিরুদ্ধেও করা পাপ বটে (১করিন্থীয় ৬:১৮ পদ)। আমরা আমাদের নিজেদের যেভাবে ভালবাসি ও সম্মান করি তেমনিভাবে অন্যদেরর ভালবাসা ও সম্মান করা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় (রোমীয় ১২:৯-১০ পদ), এবং এটি সুনির্দিষ্টভাবে প্রণয়-প্রার্থনা করা কিংবা বিয়ের আগে পূর্বনির্দিষ্ট দিনক্ষণে কারও সাথে দেখা করার বা ডেটিং করার মত সম্পর্কগুলোর ক্ষেত্রেও সমানভাবে প্রযোজ্য এবং সত্য বলে বিবেচিত। ডেট করা বা কারও পাণিপ্রার্থনা করার বিষয়টিতে যখন বাইবেলসম্মত বিবাহসংক্রান্ত আচরণবিধিগুলো অনুসরণ করা হয় তখন এটিই হয়ে পড়ে বিবাহের জন্য একটি নিরাপদ ভিত্তি পাওয়ার সর্বোত্তম উপায় বা পদ্ধতি। এটি হচ্ছে আমরা আমাদের জীবনে যত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি সিদ্ধান্ত, কারণ যখন দুই জন ব্যক্তি (পুরুষ-মহিলা) বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয় তখন তারা একটি ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে আবদ্ধ হয় এবং তারা দুইজন একদেহে হয়, এই বিষয়টিকে ঈশ্বর স্বয়ং চিরস্থায়ী এবং অলঙ্ঘনীয় (যা ভাঙা যায় না)-রূপে সংকল্পবদ্ধ করেছেন (আদিপুস্তক ২:২৪; মথি ১৯:৫ পদ)।



বাংলা হোম পেজে ফিরে যান



বিয়ের আগে পূর্ব নির্ধারিত দিনক্ষণে দেখা করা/প্রণয় প্রার্থনা করা (ডেটিং করা) সম্পর্কে বাইবেল কী বলে?