প্রায়শ্চিত্তের বিভিন্ন তত্ত্বগুলি কি কি?


প্রশ্ন: প্রায়শ্চিত্তের বিভিন্ন তত্ত্বগুলি কি কি?

উত্তর:
গির্জার ইতিহাস জুড়ে, প্রায়শ্চিত্তের বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি, কিছু সত্য এবং কিছু মিথ্যা, বিভিন্ন ব্যক্তি বা সম্প্রদায়ের দ্বারা প্রকাশিত হয়েছে I বিভিন্ন মতামতের অন্যতম কারণ হ’ল পুরনো ও নতুন নিয়ম উভয়ই খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্ত সম্পর্কে অনেক সত্য প্রকাশ করে, এটি প্রায়শ্চিত্তের ঐশর্যকে পুরোপুরি আবদ্ধ বা ব্যাখ্যা করে এমন একক “তত্ত্ব”কে খুঁজে পাওয়া অসম্ভব না করলেও, এটিকে শক্ত করে I বাইবেল অধ্যয়ন করার সাথে সাথে আমরা যা আবিষ্কার করেছি তা হ’ল প্রায়শ্চিত্তের সমৃদ্ধ এবং বহুমুখী চিত্র যেমন বাইবেল খ্রীষ্টের দ্বারা মুক্তি লাভের বিষয়ে অনেক আন্ত:সম্পর্কিত সত্য তুলে ধরেছে I প্রায়শ্চিত্তের বিভিন্ন তত্বের আর একটি অবদানকারী কারণ হ’ল প্রায়শ্চিত্ত সম্পর্কে আমরা যা শিখতে পারি তার বেশিরভাগ অংশই পুরনো নিয়মের বলিদান সংক্রান্ত পদ্ধতির অধীনে ঈশ্বরের লোকেদের অভিজ্ঞতা এবং দৃষ্টিভঙ্গি থেকে বোঝা দরকার I

খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্ত, এর উদ্দেশ্য এবং এটি কি সম্পাদন করেছিল তা এতই সমৃদ্ধ বিষয় যে খণ্ডের পর খণ্ড এ সম্পর্কে রচিত হয়েছে I এই নিবন্ধটি কেবল এক সময়ে বা অন্য সময়ে এগিয়ে আসা অনেকগুলি তত্বের সংক্ষিপ্ত বিবরণ দেবে I প্রায়শ্চিত্তের বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি দেখতে গিয়ে আমাদের অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে, মানুষের পাপকে বা প্রায়শ্চিত্তের প্রতিস্থাপনের প্রকৃতিকে স্বীকৃতি দেয় না এমন কোনও দৃষ্টিভঙ্গি সবচেয়ে ত্রুটিযুক্ত বা সব চেয়ে খারাপের দিকে তাত্ত্বিক I

শয়তানের কাছে মুক্তিপণ: এই মতামত খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্ত মানুষের স্বাধীনতাকে ক্রয় করার জন্য এবং শয়তানের দাসত্ব থেকে মুক্ত করার জন্য শয়তানকে দেওয়া মুক্তিপণ হিসাবে দেখেছে I এটি একটি বিশ্বাসের ভিত্তিতে তৈরী করা হয় যে মানুষের আধ্যাত্মিক অবস্থা শয়তানের দাসত্বের অধীন এবং খ্রীষ্টের মৃত্যুর অর্থ ছিল শয়তানের উপরে ঈশ্বরের বিজয়কে সুরক্ষিত করা I এই তত্বটির শাস্ত্রীয় সমর্থন, যদিও থাকে, খুব কম, এবং পুরো ইতিহাস জুড়ে কম সমর্থক রয়েছে I এটি অ-বাইবেলীয় যার মধ্যে এটি ঈশ্বরের পরিবর্তে শয়তানকে দেখে, যাকে একজনের পাপের জন্য মুক্তিপণ হিসাবে দেওয়ার দরকার ছিল I সুতরাং, এটি পুরো শাস্ত্রে যেমন দেখা যায় ঈশ্বরের ন্যায়বিচারের দাবিগুলি সম্পূর্ণ উপেক্ষা করে I এটি শয়তানের প্রতি যতটা উচিত তার চেয়েও উঁচু দৃষ্টিভঙ্গি রাখে এবং তাকে সত্যিকারের চেয়ে বেশি শক্তিযুক্ত বলে মনে করে I পাপীরা শয়তানের কাছে ঋণী এই ধারণার পক্ষে কোনো শাস্ত্রীয় সমর্থন নেই, তবে পুরো শাস্ত্র জুড়ে আমরা দেখতে পাই যে ঈশ্বরই সেই ব্যক্তি যাঁকে পাপের জন্য এক মূল্য দেওয়ার জন্য প্রয়োজন হয় I

ঝালিয়ে নেওয়ার তত্ত্ব: এই তত্বটি বলে যে খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্ত মানবজাতির ক্রমকে অবাধ্যতা থেকে আনুগত্যের দিকে ফিরিয়ে দিয়েছে I এটি বিশ্বাস করে যে খ্রীষ্টের জীবন মানব জীবনের সমস্ত স্তরকে ঝালিয়ে নিয়েছিল এবং তা করার ফলে আদমের দ্বারা শুরু করা অবাধ্যতার ধারাকে পাল্টে দেয় I শাস্ত্রীয়ভাবে এই তত্বকে সমর্থন করা যায় না I

নাটকীয় তত্ত্ব: এই দৃষ্টিভঙ্গি খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্তকে ভাল এবং মন্দের মধ্যে একটি ঐশ্বরিক সংঘাতের মধ্যে বিজয়কে সুরক্ষিত হিসাবে দেখে এবং শয়তানের দাসত্ব থেকে মানুষের মুক্তিকে জয় করে I খ্রীষ্টের মৃত্যুর অর্থ হ’ল শয়তানের বিরুদ্ধে ঈশ্বরের বিজয়কে নিশ্চিত করা এবং মন্দকে দাসত্ব থেকে ছাড়িয়ে বিশ্বকে মুক্ত করার একটি উপায় সরবরাহ করা I শাস্ত্রীয়ভাবে এই তত্বকে সমর্থন করা যায় না I

রহস্যবাদী তত্ত্ব: রহস্যবাদী তত্ত্ব পবিত্র আত্মার শক্তির মাধ্যমে খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্তকে তাঁর নিজের পাপী প্রকৃতির উপরে জয় হিসাবে দেখেছে I যারা এই মতবাদ ধরে রাখে তারা বিশ্বাস করে যে এর জ্ঞান রহস্যজনকভাবে মানুষকে প্রভাবিত করবে এবং তার “ঈশ্বর-চেতনাকে” জাগিয়ে তুলবে I তারা আরও বিশ্বাস করে যে মানুষের আধ্যাত্মিক অবস্থা পাপের ফল নয়, কেবল “ঈশ্বর-চেতনার” অভাব I স্পষ্টতই এটি বাইবেল সম্মত নয় I এটি বিশ্বাস করার জন্য একজনকে অবশ্যই বিশ্বাস করতে হবে যে খ্রীষ্টের মধ্যে পাপ প্রকৃতি ছিল, যদিও শাস্ত্র স্পষ্ট যে যীশু তাঁর প্রকৃতির প্রতিটি ক্ষেত্রে নিখুঁত ঈশ্বর-মানব ছিলেন, তাঁর প্রকৃতির প্রতিটি ক্ষেত্রে পাপহীন ছিলেন (ইব্রীয় 4:15) I

নৈতিক প্রভাবের তত্ত্ব: এটি এমন বিশ্বাস যে খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্ত ঈশ্বরের প্রেমের একটি প্রদর্শন যা মানুষের হৃদয়কে নরম এবং অনুতপ্ত করে I যারা এই মতামত রাখে তারা বিশ্বাস করে যে মানুষ অদ্ধ্যাত্মিকভাবে অসুস্থ এবং সাহায্যের প্রয়োজন এবং সেই লোকটি মানুষের প্রতি ঈশ্বরের ভালবাসা দেখে ঈশ্বরের ক্ষমা গ্রহণ করতে অগ্রসর হয় I তারা বিশ্বাস করে যে খ্রীষ্টের মৃত্যুর উদ্দেশ্য এবং অর্থ ছিল মানুষের প্রতি ঈশ্বরের ভালবাসা প্রদর্শন করা I যদিও এটি সত্য যে খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্ত ঈশ্বরের প্রেমের চূড়ান্ত উদাহরণ, এই দৃষ্টিভঙ্গি বাইবেল সম্মত কারণ এটি মানুষের সত্যিকারের অধ্যাত্মিক অবস্থাকে অস্বীকার করে – অপরাধে ও পাপে মৃত (ইফিষীয় 2:1) – এবং অস্বীকার করে যে ঈশ্বরের আসলে পাপের জন্য একটি মূল্য প্রদানের প্রয়োজন I খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্তের এই দৃষ্টিভঙ্গি মানবজাতিকে সত্য ত্যাগ বা পাপের জন্য মূল্য প্রদান ছাড়াই ছেড়ে দেয় I

উদাহরণের তত্ব: এই দৃষ্টিভঙ্গি খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্তকে কেবল ঈশ্বরের প্রতি বাধ্য হতে মানুষকে অনুপ্রাণিত করার জন্য বিশ্বাস ও আনুগত্যের উদাহরণ সরবরাহ করে I যারা এই মতবাদকে ধারণ করে তারা বিশ্বাস করে যে মানুষ অধ্যাত্মিকভাবে বেঁচে আছে এবং খ্রীষ্টের জীবন ও প্রায়শ্চিত্ত করা কেবল সত্য বিশ্বাস ও আনুগত্যের একটি উদাহরণ ছিল এবং বিশ্বাস ও আনুগত্যের অনূরূপ জীবনযাপন করার জন্য মানুষদের অনুপ্রেরণা হিসাবে কাজ করা উচিত I এটি এবং নৈতিক প্রভাবের তত্ত্ব এইরকম যে তারা উভয়ই অস্বীকার করে যে ঈশ্বরের ন্যায় বিচার আসলে পাপের জন্য মূল্য প্রদানের প্রয়োজন বোধ করে এবং ক্রুশে খ্রীষ্টের মৃত্যুর অর্থ হ’ল এই মূল্য প্রদান I নৈতিক প্রভাব তত্ত্ব এবং উদাহরণ তত্তের মধ্যে প্রধান পার্থক্য হ’ল নৈতিক প্রভাব তত্ত্বটি বলে যে খ্রীষ্টের মৃত্যু আমাদের শিক্ষা দেয় যে ঈশ্বর আমাদের কতটা ভালবাসেন এবং উদাহরণ তত্তটি বলে যে খ্রীষ্টের মৃত্যু কিভাবে বাঁচতে সেখায় I অবশ্যই এটি সত্য যে খ্রীষ্ট আমাদের অনুসরণ করার জন্য উদাহরণ, এমনকি তাঁর মৃত্যুতেও, তবে উদাহরণের তত্বটি মানুষের সত্যিকারের আধ্যাত্মিক অবস্থাকে স্বীকৃতি দিতে ব্যর্থ হয় এবং ঈশ্বরের ন্যায় বিচার পাপের জন্য মূল্য প্রদানের প্রয়োজন যা মানুষ প্রদান করতে সক্ষম নয় I

বানিজ্যিক তত্ত্ব: বানিজ্যিক তত্ত্ব খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্তকে ঈশ্বরের কাছে অসীম সম্মান আনার মতন দেখে I এর ফলে ঈশ্বর খ্রীষ্টকে এমন পুরস্কার প্রদান করেছিলেন যার তাঁর দরকার ছিল না, এবং খ্রীষ্ট সেই পুরস্কারটি মানুষের হাতে তুলে দিয়েছিলেন I যারা এই দৃষ্টিভঙ্গি ধারণ করে তারা বিশ্বাস করে যে মানুষের অধ্যাত্মিক অবস্থা হ’ল ঈশ্বরকে অসম্মান করা এবং তাই খ্রীষ্টের মৃত্যু, যা ঈশ্বরের কাছে অসীম সম্মান নিয়ে আসে, মুক্তির উদ্দেশ্যে পাপীদের জন্য প্রয়োগ করা যেতে পারে I এই তত্বটি, অন্য অনেকের মতন, অপুনর্গঠিত পাপীদের সত্য অধ্যাত্মিক অবস্থা এবং কেবল খ্রীষ্টের মধ্যে উপলব্ধ একটি সম্পূর্ণ নতুন প্রকৃতি তাদের প্রয়োজনকে অস্বীকার করে (2 করিন্থীয়া 5:17) I

সরকারী তত্ত্ব: এই দৃষ্টিভঙ্গি খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্তকে তাঁর ব্যবস্থা ও পাপের প্রতি তাঁর মনোভাবের জন্য ঈশ্বরের উচ্চ সমান প্রদর্শনকারী হিসাবে দেখে I এটি হ’ল খ্রীষ্টের মৃত্যু যার মাধ্যমে ঈশ্বরের কাছে তাদের পাপ ক্ষমা করার কারণ রয়েছে যারা অনুতাপ করে এবং খ্রীষ্টের বিকল্প মৃত্যুকে স্বীকার করে I যারা একই মতকে ধারণ করে তারা বিশ্বাস করে যে মানুষের অধ্যাত্মিক অবস্থা এমন একজনের মতন যিনি ঈশ্বরের নৈতিক বিধি লঙ্ঘন করেছেন এবং খ্রীষ্টের মৃত্যুর অর্থ পাপের শাস্তির বিকল্প হওয়ার ছিল I যেহেতু খ্রীষ্ট পাপের জন্য মূল্য দিয়েছিলেন, তাই ঈশ্বরের পক্ষে যারা খ্রীষ্টকে তাদের বিকল্প হিসাবে গ্রহণ করে তাদের বৈধভাবে ক্ষমা করা সম্ভব I এই দৃষ্টিভঙ্গির সংক্ষিপ্তসার এই যে এটি শেখায় না যে খ্রীষ্ট আসলে কোনও লোকের প্রকৃত পাপের শাস্তির জরিমানা প্রদান করেছিলেন, কিন্তু পরিবর্তে মানবজাতিকে কেবলমাত্র দেখায় যে ঈশ্বরের ব্যবস্থাগুলি ভাঙ্গা হয়েছিল এবং কিছু জরিমানা দেওয়া হয়েছিল I

দণ্ডনীয় বিকল্প তত্ত্ব: এই তত্বটি খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্তকে একটি বিকৃত, বৈকল্পিক বলি হিসাবে দেখে যা পাপের জন্য ঈশ্বরের ন্যায়বিচারের দাবিকে সন্তুষ্ট করে I খ্রীষ্ট মানুষের পাপের জরিমানা প্রদান করে ক্ষমা আনেন, ধার্মিকতা দান করেন এবং মানুষকে ঈশ্বরের সাথে পুনর্মিলন করান I যারা এই মত ধারণ করে তারা বিশ্বাস করে যে মানুষের প্রতিটি দিক – তার মন, ইচ্ছা, এবং আবেগ – পাপ দ্বারা দুষিত হয়ে গেছে এবং মানুষ সম্পূর্ণরূপে চরিত্রহীন এবং অধ্যাত্মিকভাবে মৃত I এই দৃষ্টিভঙ্গি ধারণ করে যে খ্রীষ্টের মৃত্যু পাপের জন্য জরিমান প্রদান করেছিল এবং বিশ্বাসের মাধ্যমেই মানুষ খ্রীষ্টের বিকল্পকে পাপের জন্য মূল্য হিসাবে গ্রহণ করতে পারে I প্রায়শ্চিত্তের এই দৃষ্টিভঙ্গি পাপ, মানুষের প্রকৃতি এবং ক্রুশের উপরে খ্রীষ্টের মৃত্যুর ফলাফল সম্পর্কে শাস্ত্রের সাথে সর্বাধিক সঠিকভাবে একত্রিত হয় I

English
বাংলা হোম পেজে ফিরে যান
প্রায়শ্চিত্তের বিভিন্ন তত্ত্বগুলি কি কি?

কিভাবে খুঁজে ...

ঈশ্বর সঙ্গে অনন্তকাল কাটা



ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা লাভ করুন