কেন সব খ্রীষ্টানরা ভন্ড?


প্রশ্ন: কেন সব খ্রীষ্টানরা ভন্ড?

উত্তর:
সম্ভবত কোনো অভিযোগ “ভণ্ড”র থেকে বেশি প্ররোচকমূলক নয় I দুর্ভাগ্যক্রমে, কেউ কেউ তাদের দৃষ্টিতে ন্যায়সঙ্গত বোধ করেন যে সমস্ত খ্রীষ্টান ভণ্ড I “ভণ্ড” শব্দটি ইংরেজি ভাষায় একটি সমৃদ্ধ ঐতিহ্য উপভোগ করে I শব্দটি লাতিনের হিপোক্রাসিস থেকে আসে যার অর্থ হ’ল “অভিনয় করা, ভান করা I” আরও পেছনে, শব্দটি শাস্ত্রীয় এবং গ্রীক নতুন নিয়ম উভয় ক্ষেত্রেই ঘটে এবং একই ধারণা রয়েছে – একটি ভূমিকা অভিনয় করা, ভান করা I

প্রভু যীশু এইভাবেই এই শব্দটি ব্যবহার করেছিলেন I উদাহরণস্বরূপ, যখন খ্রীষ্ট রাজ্যের লোকেদের প্রার্থনা, উপবাস, এবং ভিক্ষা দেওয়ার তাত্পর্য সম্পর্কে শিক্ষা দিয়েছিলেন, যারা ভণ্ড তাদের উদাহরণ অনুশরণ করতে তিনি আমাদের নিরুৎসাহ করেছিলেন (মথি 6:2, 5, 16) I দীর্ঘ প্রকাশ্য প্রার্থনা করে, তাদের উপবাস প্রার্থনা অন্যরা লক্ষ্য করুক এটি নিশ্চিত করতে চূড়ান্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করে, এবং মন্দির ও দরিদ্রকে তাদের উপহারগুলিকে জাহির করে, তারা প্রভুর সাথে কেবল একটি বাহ্যিক অনুরাগ প্রকাশ করে I ফরিশীরা ধর্মীয় গুণাবলীর প্রকাশ্য উদাহরণ হিসাবে তাদের নাটকীয় ভূমিকা ভালভাবে সম্পাদন করলেও তারা হৃদয়ের অন্তর্নিহিত জগতে শোচনীয়ভাবে ব্যর্থ হয়েছিল যেখানে প্রকৃত পূণ্য বাস করে (মথি 23:13-33; মার্ক 7:20-23) I

যীশু শিষ্যদেরকে কখনও ভণ্ড বলে সম্বোধন করেন নি I ওই নামটি কেবল ভ্রান্ত ধার্মিক মৌলবাদীকে দেওয়া হয়েছিল I বরং, তিনি তাঁর আপনাদের “অনুগামী,” “বালক’” “মেষ,” এবং “চার্চ” বলে সম্বোধন করেছেন I অধিকন্তু, ভণ্ডামির পাপ সম্পর্কে নতুন নিয়মে একটি সতর্কতা রয়েছে (1 পিতর 2:1), যাকে পিতর “আন্তরিকতাহীন” বলেছেন I এছাড়াও গির্জার মধ্যে ভণ্ডামির দুটি নির্লজ্জ উদাহরণ লিপিবদ্ধ রয়েছে I প্রেরিত 5:1-10 পদে, দুজন শিষ্য তাদের চেয়ে বেশি উদার হওয়ার ভান করার জন্য উন্মুক্ত হন I পরিণতি গুরুতর ছিল I এবং সমস্ত লোকেদের মধ্যেই, পিতরের বিরুদ্ধে অ-যিহূদি বিশ্বাসীদের সাথে তাদের আচরণের জন্য ভণ্ডদের একটি দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য অভিযোগ আনা হয়েছে (গালাতীয় 2:13) I

নতুন নিয়মের শিক্ষা থেকে, তাহলে, আমরা কমপক্ষে দুটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারি I প্রথমত, বিশ্বাসী খ্রীষ্টানদের মধ্যে ভণ্ডদের উপস্থিতি রয়েছে I তারা শুরুতে উপস্থিত ছিলেন, এবং যীশুর আগাছা ও গমের দৃষ্টান্ত অনুসারে, তারা নিশ্চিতভাবে যুগের শেষ পর্যন্ত থাকবে (মথি 18:13-30) I অধিকন্তু, এমনকি যদি কোনও প্রেরিত ভণ্ডামির জন্য দোষী হয়ে থাকে, তবে “সাধারণ” খ্রীষ্টানরা এর থেকে মুক্তি পাবে বলে বিশ্বাস করার কোনোও কারণ নেই I আমাদের অবশ্যই সর্বদা সতর্কতায় থাকতে হবে যে আমরা বিশেষ একই প্রলোভনে না পড়ি (1 করিন্থীয়া 10:12) I

অবশ্যই খ্রীষ্টান বলে দাবি করা প্রত্যেকেই সত্য খ্রীষ্টান নয় I সম্ভবত খ্রীষ্টানদের মধ্যে সমস্ত বা বেশিরভাগ বিখ্যাত ভণ্ডরা প্রকৃতপক্ষে ভানকারী বা প্রতারক ছিল I আজ অবধি খ্রীষ্টান নেতারা ভয়াবহ পাপের মধ্যে পড়েছেন I আর্থিক এবং যৌন কেলেঙ্কারী কখনও কখনও খ্রীষ্টান সম্প্রদায়কে জর্জরিত করে বলে মনে হয় I তবে কয়েকজন সম্পর্কে পদক্ষেপ নেওয়ার পরিবর্তে এবং খ্রীষ্টানদের পুরো সম্প্রদায়কে নিন্দিত করার জন্য তাদের ব্যবহার করার পরিবর্তে, আমাদের জিজ্ঞাসা করা উচিত যারা খ্রীষ্টান বলে দাবি করেছিল তারা সকলেই সত্যই খ্রীষ্টান কি না I বাইবেলের বিভিন্ন অনুচ্ছেদগুলি নিশ্চিত করে যে যারা সত্যিকার অর্থে খ্রীষ্টের অন্তর্ভুক্ত তারা আত্মার ফল প্রদর্শন করবে (গালাতীয় 5:22-23) I মথি 13 এর মধ্যে বীজ এবং মাটির দৃষ্টান্তে যীশু স্পষ্ট করেন যে তাঁর প্রতি বিশ্বাসের সমস্ত ঘোষণাকারী সত্য নয় I দুঃখের বিষয়, যারা নিজেকে তাঁর বলে দাবি করেন একদিন তাদের প্রতি তাঁর কথা শুনে হতবাক হয়ে যাবে, “আমি তোমাকে কখনও চিনিনি, “তোমরা অন্যায়কারীরা আমার থেকে দুরে থাক” (মথি 7:23) I

দ্বিতীয়ত, যদিও আমাদের অবাক হওয়া উচিত নয় যে লোকেরা খ্রীষ্টান বলে দাবি করার চেয়ে বেশি পবিত্র হওয়ার ভান করে, আমরা এই সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারি না যে গির্জা প্রায়শই পুরোপুরি ভণ্ডদের দ্বারা গঠিত I একজন অবশ্যই স্বীকার করতে পারেন যে আমাদের মধ্যে যারা সকলে যীশু খ্রীষ্টের নাম ধরে ডাকি তারা আমাদের পাপ ক্ষমা হয়ে যাওয়ার পরেও পাপী থেকে যায় I অর্থাৎ, যদিও আমরা পাপের অনন্ত শাস্তি থেকে রক্ষা পেয়েছি (রোমীয় 5:1: 6:23), আমাদের এখনও কপটতা সহ আমরা আমাদের জীবনে পাপের উপস্থিতি থেকে উদ্ধার লাভ করতে এবং মুক্তি পেতে হবে (1 যোহন 1:8-9) I প্রভু যীশুতে আমাদের জীবিত বিশ্বাসের মধ্য দিয়ে আমদের চূড়ান্ত মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত ক্রমাগত পাপের শক্তি কাটিয়ে উঠি (1 যোহন 5:4-5) I

সমস্ত খ্রীষ্টান বাইবেলের মানদণ্ডের শিক্ষা অনুযায়ী চলতে ব্যর্থ হয় I কোনো খ্রীষ্টান খ্রীষ্টের মতন নিখুঁত কখনও হয় নি I তবে, এমন অনেক খ্রীষ্টান আছে যারা খাঁটিভাবে খ্রীষ্টান জীবনযাপনের অন্বেষণ করছেন এবং সমর্পণ করতে, পরিবর্তন করতে, এবং তাদেরকে ক্ষমতায়ন করতে বেশি বেশি করে পবিত্র আত্মার উপরে নির্ভর করছেন I খ্রীষ্টানদের প্রচুর সংখ্যা রয়েছে যারা কেলেঙ্কারী মুক্ত জীবনযাপন করেছেন I কোনো খ্রীষ্টান নিখুঁত নয়, তবে একটি ভুল করা এবং এই জীবনে সিদ্ধি অর্জনে ব্যর্থ হওয়া ভণ্ড হওয়ার মতন এক জিনিস নয় I

English
বাংলা হোম পেজে ফিরে যান
কেন সব খ্রীষ্টানরা ভন্ড?

কিভাবে খুঁজে ...

ঈশ্বর সঙ্গে অনন্তকাল কাটা



ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা লাভ করুন