ক্ষমা পেয়েছেন কি? আমি কিভাবে ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা পেতে পারি?



প্রশ্ন: ক্ষমা পেয়েছেন কি? আমি কিভাবে ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা পেতে পারি?

উত্তর:
প্রেরিত ৩:৩৮ পদে বলা হয়েছে, “এইজন্য আমার ভাইয়েরা, আপনাদের জানা দরকার যে, যীশুর মধ্য দিয়েই আপনাদের কাছে পাপের ক্ষমা পাবার বিষয়ে প্রচার করা হচ্ছে”।

ক্ষমা কি? কেন আমার ক্ষমা দরকার?

“ক্ষমা” মানে পরিস্কার করে মুছে ফেলা, ছেড়ে দেওয়া, কোন ঋণ থাকলে তা মাফ করে দেওয়া। আমরা যখন কারও কাছে অন্যায় করি, তখন তার কাছে ক্ষমা চাই যেন আমাদের পুরানো সম্পর্ক পুনরুদ্ধার হয়। ক্ষমা পেতে চাইলে একজনকে অবশ্যই ক্ষমা পাবার উপযুক্ত হতে হবে। কেউই ক্ষমা পাবার উপযুক্ত না। ক্ষমা হচ্ছে ভালবাসা, দয়া ও অনুগ্রহের কাজ। ক্ষমা হচ্ছে এমন এক সিদ্ধান্ত যে আপনার বিপক্ষে শত অপরাধ করা সত্বেও তার বিরুদ্ধে কোন দোষ না ধরা।

পবিত্র বাইবেল আমাদের বলেছে যে, আমাদের সকলেরই ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা পাওয়া দরকার। আমরা সকলেই পাপ করেছি। উপদেশক ৭:২০ পদে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে, “পৃথিবীতে এমন কোন সৎ লোক নেই যে সব সময় ভাল কাজ করে, কখনও পাপ করে না।” ১ যোহন ১:৮ পদে বলা হয়েছে, “যদি আমরা বলি আমাদের মধ্যে পাপ নেই তবে আমরা নিজেদের ফাঁকি দিই। তাতে এটাই বোঝা যায় যে, আমাদের অন্তরে ঈশ্বরের সত্য নেই।” সমস্ত পাপই হচ্ছে চুড়ান্তভাবে ঈশ্বরের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করা (গীতসংহিতা ৫১:৪ পদ দ্রষ্টব্য)। এই কারণেই ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা লাভ করা আমাদের জন্য একান্তই দরকার। আমাদের পাপ যদি ক্ষমা না হয়, তাহলে আমরা আমাদের পাপের ফল হিসাবে অনন্তকাল ধরে শাস্তি ভোগ করব (মথি ২৫:৪৬; যোহন ৩:৩৬ পদ দ্রষ্টব্য)।

ক্ষমা- আমি কিভাবে পেতে পারি?

আমরা কৃতজ্ঞ, কারণ ঈশ্বর দয়াশীল ও প্রেমিক- তিনি আমাদের পাপ ক্ষমা করতে আগ্রহী! ২ পিতর ৩:৯ পদ বলা হয়েছে, “... ... আসলে তিনি তোমাদের প্রতি ধৈর্য ধরছেন, কারণ কেউ যে ধ্বংস হয়ে যায় এটা তিনি চান না, বরং সবাই যেন পাপ থেকে মন ফিরায় এটাই তিনি চান।” ঈশ্বর আমাদের ক্ষমা করতে ইচ্ছুক, তাই তিনি আমাদের জন্য ক্ষমা পাবার ব্যবস্থা করেছেন।

শুধুমাত্র মৃত্যুই হচ্ছে আমাদের পাপের উপযুক্ত শাস্তি। রোমীয় ৬:২৩ পদের প্রথম অংশ ঘোষণা দিয়েছে, “পাপ যে বেতন দেয় তা মৃত্যু ...”, আর আমাদের পাপের জন্যই আমরা অনন্ত শাস্তি পাবার যোগ্য হয়েছি। কিন্তু ঈশ্বর, তাঁর নিখূঁত পরিকল্পনা মতই যীশু খ্রীষ্ট মানুষ হলেন (যোহন ১:১ ও ১৪ পদ)। যীশু ক্রুশে মৃত্যুবরণ করলেন, আমাদের পাওনা শাস্তি মৃত্যুকে তিনিই গ্রহণ করলেন। ২ করিন্থীয় ৫:২১ পদ আমাদের শিক্ষা দেয়, “যীশু খ্রীষ্টের মধ্যে কোন পাপ ছিল না; কিন্তু ঈশ্বর আমাদের পাপ তাঁর উপর তুলে দিয়ে তাঁকেই পাপের জায়গায় দাঁড় করালেন, যেন খ্রীষ্টের সংগে যুক্ত থাকবার দরুন ঈশ্বরের পবিত্রতা আমাদের পবিত্রতা হয়।” যীশু ক্রুশে মৃত্যুবরণ করলেন, আমাদের পাওনা শাস্তি তিনিই গ্রহণ করলেন! ঈশ্বর হিসাবে যীশুর মৃত্যুবরণ সমস্ত পৃথিবীর জন্য পাপের ক্ষমা পাবার উপায় হল। ১ যোহন ২:২ পদ ঘোষণা করেছে, “আমাদের পাপ দূর করবার জন্য খ্রীষ্ট তাঁর নিজের জীবন উত্সর্গ করে ঈশ্বরকে সন্তুষ্ট করেছেন। কেবল আমাদের পাপ নয়, কিন্তু সমস্ত মানুষের পাপ দূর করবার জন্য তিনি তা করেছেন”। যীশু মৃত্যু থেকে জীবিত হয়ে উঠেছেন, পাপ ও মৃত্যুকে পরাজিত করে তাঁর বিজয় ঘোষণা করেছেন (১ করিন্থীয় ১৫:১-২৮ পদ দ্রষ্টব্য)। যীশু খ্রীষ্টের মৃত্যু ও পুনরুত্থানের জন্য ঈশ্বরের গৌরব করি এবং রোমীয় ৬:২৩ পদের দ্বিতীয় অংশটি সত্য বলে দেখতে পাই, “কিন্তু ঈশ্বর যা দান করেন তা আমাদের প্রভু খ্রীষ্ট যীশুর মধ্য দিয়ে অনন্ত জীবন।”

আপনি কি আপনার পাপের ক্ষমা পেতে চান? আপনার মধ্যে কি পাপবোধের বিরক্তিকর অনুভূতি রয়েছে, যা থেকে আপনি বের আসতে পারেন না? আপনি আপনার পাপের ক্ষমা লাভ করতে পারেন, যদি আপনি যীশু খ্রীষ্টকে আপনার উদ্ধারকর্তা বলে বিশ্বাস করেন। ইফিষীয় ১:৭ পদ বলেছে, “ঈশ্বরের অশেষ দয়া অনুসারে খ্রীষ্টের সংগে যুক্ত হয়ে তাঁর রক্তের দ্বারা আমরা মুক্ত হয়েছি, অর্থাৎ পাপের ক্ষমা পেয়েছি”। যীশু আমাদের পক্ষে সব ঋণ পরিশোধ করেছেন, যেন আমরা ক্ষমা পাই। আপনাকে শুধুমাত্র যীশুর মধ্য দিয়ে ঈশ্বরের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে, বিশ্বাস করতে হবে যে, যীশু আপনার পাপের ক্ষমা দিতেই মৃত্যুকে বরণ করেছেন- তিনি আপনাকে ক্ষমা করবেন! যোহন ৩:১৬-১৭ পদে এক চমৎকার বাণী তুলে ধরা হয়েছে, “ঈশ্বর মানুষকে এত ভালবাসলেন যে, তাঁর একমাত্র পুত্রকে তিনি দান করলেন, যেন যে কেউ সেই পুত্রের উপরে বিশ্বাস করে সে বিনষ্ট না হয় কিন্তু অনন্ত জীবন পায়”।

ক্ষমা পাওয়া- সত্যিই কি এত সহজ?

হ্যাঁ, সত্যিই সহজ! আপনি ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা পেতে পারেন না। আপনি ঈশ্বরের কাছ থেকে আপনার ক্ষমার জন্য দাম দিতে পারেন না। শুধুমাত্র বিশ্বাসে, ঈশ্বরের দয়া ও অনুগ্রহে আপনি তা গ্রহণ করতে পারেন। যদি আপনি যীশু খ্রীষ্টকে আপনার পরিত্রাণকর্তা বা উদ্ধারকর্তা বলে গ্রহণ করতে চান এবং ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা পেতে চান, তাহলে এখানে লেখা প্রার্থনাটি করতে পারেন। এই প্রার্থনা বললে বা অন্য কোন প্রার্থনা বললেই আপনি উদ্ধার পাবেন না। এটি শুধুমাত্র যীশু খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করা, যা কি না পাপের ক্ষমা দিতে পারে। এই প্রার্থনাটি ঈশ্বরের প্রতি আপনার বিশ্বাস প্রকাশ করার সহজ একটি পথ এবং তাঁর কাছ থেকে আপনি যে ক্ষমা পেয়েছেন সেজন্য ধন্যবাদ জানানো মাত্র। ‘ঈশ্বর, আমি জানি আমি আপনার বিরুদ্ধে পাপ করেছি, সেজন্য শাস্তি আমার পাওনা। কিন্তু যীশু খ্রীষ্ট আমার পাওনা শাস্তি নিজেই নিয়েছেন যেন তাঁকে বিশ্বাস করে আমি ক্ষমা পেতে পারি। পরিত্রাণ বা উদ্ধারের জন্য আমি আপনার প্রতি বিশ্বাস রাখি। আপনার অতুলনীয় অনুগ্রহ ও ক্ষমার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ! আমেন!’

এগুলো পড়ে আপনি কি খ্রীষ্টের পক্ষে কোন সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছেন? যদি নিয়ে থাকেন, তাহলে, ‘আমি আজকে খ্রীষ্টকে গ্রহণ করেছি’ লেখা নীচের বোতামে টিক চিহ্ন দিন।



বাংলা হোম পেজে ফিরে যান



ক্ষমা পেয়েছেন কি? আমি কিভাবে ঈশ্বরের কাছ থেকে ক্ষমা পেতে পারি?